Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২০১৯ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

এবার যুক্তরাজ্যে বর্ণবাদের শিকার মুসলিম পরিবার

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ মার্চ ২০১৯, ১২:৩২ PM
আপডেট: ২১ মার্চ ২০১৯, ১২:৩২ PM

bdmorning Image Preview


নিউজিল্যান্ডে ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার রেশ না কাটতেই আবারও বর্ণবাদের শিকার যুক্তরাজ্যের এক মুসলিম পরিবার। গত মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কের একটি বাড়ির পার্কিং এলাকার গাড়িতে স্প্রে করে লেখা হলো- ‘মুসলিম কুকুররা।’

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উত্তর পার্থের ক্লার্কসন শহরের এক মুসলিম বাড়িতে ঘটেছে এ ঘটনা।  গতকাল মঙ্গলবার সকালে বাড়ির কর্তা হাসান উঠে দেখেন, তার বাড়ির পার্কিংয়ে রাখা সাদা রঙের বিএমডাব্লিউতে স্প্রে করে লেখা ‘নাজি প্রতীক (হিটলার বাহিনীর)’ এবং আক্রমণাত্মক শব্দ।

সকালে মরিয়মের স্বামী তার সন্তানকে খাওয়ানোর জন্য উঠে গাড়ির এ অবস্থা দেখেন।

মরিয়ম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘মনে হচ্ছে তারা আমাদের ভয় দেখাতে চাচ্ছেন এবং বলছে এই দেশ ছেড়ে চলে যাও।’

কে বা কারা এমন করেছে সে বিষয়ে তার কোনো ধারনা নেই বলে মরিয়ম আরও জানান।  তিনি প্রশ্ন করেন, ‘আপনারা কি আমাদের ঘৃণা করেন? এটা খুবই বিরক্তিকর।’

হাসানের পরিবারের বিশ্বাস, অপরাধী তাদের বাড়িতে রাত ২টা থেকে ৪টার মধ্যে এসেছিলেন।

ইতিমধ্যেই পুলিশ ও ফরেনসিক দল তদন্ত শুরু করেছে।  কিন্তু এখন পর্যন্ত অপরাধীকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।  অপরাধী জাতিগত নিষ্ঠুরতা আইনের অধীনে অভিযোগের সম্মুখীন হতে পারেন।

গত শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে স্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসীর গুলিতে ৫০ জন মুসলমান নিহত হন। এ ঘটনায় আরও অনেকেই আহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে পাঁচজন বাংলাদেশি রয়েছেন বলে বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

এ হামলা থেকে অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের কয়েকজন সদস্য, যারা ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালে খেলার আগে আল নূর মসজিদে নামাজ পড়তে যাচ্ছিলেন।

হামলাকারী ব্রান্টন ট্যারেন্ট একজন অস্ট্রেলিয় নাগরিক। নিজেকে শ্বেত শ্রেষ্টত্ববাদী হিসেবে অভিহিত করা ২৮ বছর বয়সী এই তরুণকে হত্যা মামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছে।

Bootstrap Image Preview