Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৬ মঙ্গলবার, মার্চ ২০১৯ | ১১ চৈত্র ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

একঘেয়ে জীবন বদলানোর সহজ উপায়!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ অক্টোবর ২০১৮, ১০:১৬ AM
আপডেট: ২৪ অক্টোবর ২০১৮, ১০:১৬ AM

bdmorning Image Preview


জীবন মানে কখনো হাসি কখনো কান্না আবার কখনো বা একঘেয়েমি। জীবন নিয়ে মন খারাপ না করে নিজের অর্জনগুলো ভাবলে মন ভালো হবে। আমরা প্রতি নিয়ত এক কাজ করতে করতে নিজের ভিতরে অনেকের মনে হতে পারে ঘড়ির কাঁটা ধরে চলা জীবনের কোথায় যেন প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির খটকা রয়ে গেছে। তাই আমরা অনেকেই জীবনে চলার পথে প্রাপ্তির যোগফলে নিজেকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করি। চলুন জেনে নিই এমনই কয়েকটি অভ্যাসের কথা, যা করলে আপনার একঘেয়ে জীবন বদলানো যায়।

যা করতে ভয় পান তা প্রতিদিন করুন:
একঘেয়ে জীবনের এই সমস্যা কাটাতে বা জীবনকে রাঙাতে প্রতিদিন এমন একটি কাজ করুন, যে কাজ করতে আপনি ভয় পান। ধরুন, হয়তো জনসমক্ষে বা সবার সামনে কথা বলতে ভয় পান। প্রতিদিন নিজের কথার শক্তি প্রমাণের জন্য অনেকের সামনে কথা বলার চেষ্টা করুন। নিজের কোনো জড়তা কাটাতে প্রতিদিন একটু একটু করে চেষ্টা করুন। যে কাজ করতে ভয় পান, তা একটু একটু করার চেষ্টা করুন। দেখবেন জীবনে হুট করেই পরিবর্তন চলে এসেছে। ব্যাপারটা অনেকটা এমন, আপনি হয়তো ৪০ মাইল দৌড়ানোর স্বপ্ন দেখেন। কিন্তু দৌড়াতে পারবেন না বলে ভয় পান। আজই ১ মাইল দৌড়ানোর চেষ্টা করুন। ১ মাইল ১ মাইল করে অনেকগুলো মাইল মিলে একদিন কিন্তু ৪০ মাইল হয়ে যাবে।

 যা করতে ভালোবাসেন তা নিয়মিত করুন:
​​​​​​আমরা সাধারণত কার্জক্ষেত্রে অনেক সময় কাজ নিজের অনিচ্ছায় করে যা-ই অনেক দিন। নিজের ভালো লাগা কিংবা যে কাজটি ভালো পারি, তা করার সুযোগ পাই না। প্রত্যেক মানুষেরই সহজাত কোনো না কোনো প্রতিভা আছে। নিজের মধ্যের সেই আগ্রহের বিষয়টি খুঁজে বের করুন। আপনার ঊর্ধ্বতন কর্তাদের সঙ্গে কথা বলে কিছুদিন কর্মক্ষেত্রের নকশা বা অলংকরণ বিভাগে কাজ করে দেখতে পারেন। কিন্তু নিজের আঁকা ছবিগুলো সাহস করে কোনো জাতীয় বা আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় জমা দিতে পারেন, যা করতে ভালোবাসেন, তার দিকে একটু গুরুত্ব দেওয়ার চেষ্টা করুন। এতে আত্মবিশ্বাস বাড়বে।

 কাজ ভালোবেসে করে এগিয়ে চলার অভ্যাস করুন:
আমরা অনেক সময় কাজ করতে গিয়ে ব্যর্থ হলে নিজেকে দোষারোপ করি। কাজ শুরুর পর ছোট ছোট লক্ষ্য ঠিক করে সামনে এগোতে থাকুন। ছোট ছোট অর্জনে বিশাল কাজে সাফল্য আসে। বড় কাজ অনেকগুলো ভাগে ভাগ করতে শিখুন। সেই ভাগ করা কাজগুলো নিজে কিংবা অন্য কাউকে দিয়ে করানোর চেষ্টা করুন। ছোট ছোট অর্জনে আমরা অবচেতনভাবেই নিজেকে অনুপ্রাণিত করি, আর সেই অনুপ্রেরণা আমাদের বড় কাজে উৎসাহ দেয়।

Bootstrap Image Preview