Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ সোমবার, নভেম্বার ২০১৮ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

কাশ্মিরে রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশি তাড়াতে বিক্ষোভ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ০৫:১১ PM
আপডেট: ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ০৫:১১ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত ছবি


ভারতের কাশ্মিরে বসবাসকারী বেশ কয়েক হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থীকে দেশ থেকে তাড়ানোর জন্য সেখানে নতুন করে তীব্র আন্দোলন শুরু হয়েছে। ভারতের কাশ্মিরে অবৈধভাবে বসবাসকারী রোহিঙ্গা ও কথিত বাংলাদেশি অভিবাসীদের বহিষ্কারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে কাশ্মির ন্যাশনাল প্যান্থার্স পার্টি (জেকেএনপিপি)।

দলটির চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী হর্ষদেব সিংয়ের নেতৃত্বে রবিবার কাশ্মিরের এক্সিবিশন গ্রাউন্ডে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। জেকেএনপিপি সমর্থকরা এ সময় ‘ছাড়ো আমাদের জম্মু প্রদেশ, রোহিঙ্গারা যাও বাংলাদেশ’ বলে স্লোগান দেয়।

জেকেএনপিপি চেয়ারম্যান হর্ষদেব সিং বলেন, ‘জম্মু শহর ও আশপাশের এলাকায় মিয়ানমার ও বাংলাদেশের বাসিন্দারা বাস করছেন। তাদের চিহ্নিত করাও হয়েছে। অবিলম্বে কাশ্মির থেকে তাদের দেশে ফেরানোর দাবি জানাচ্ছি।’

বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দিয়ে হর্ষদেব সিং বলেন, ‘কেবলমাত্র বিবৃতি না দিয়ে সরকার এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিক। সরকার যেন জাতীয়তাবাদী ডোগরাদের ধৈর্যের পরীক্ষা না নেয়। রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠাতে হবে। অন্যথায় ভয়ানক পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে এবং আদি বাসিন্দা ও অবৈধ বিদেশিদের মধ্যে বিবাদের ফলে রাজ্যের সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট ভেঙে পড়বে।’

কাশ্মিরের সাবেক পিডিপি-বিজেপি জোট সরকার অবৈধ অভিবাসীদের সুযোগ সুবিধা দিয়েছে অভিযোগ করে হর্ষদেব সিং বলেন,  ‘পিডিপি-বিজেপির সরকারের সময়ে ওইসব বিদেশির জন্য বেআইনিভাবে বসতি তৈরি করে দেয়া হয়েছে।

এছাড়া স্থায়ী নাগরিক হিসেবে বসবাসের সনদ, রেশন কার্ড, আধার কার্ড, বিদ্যুৎ সংযোগ, বিনামূল্যে খাওয়ার পানি পরিষেবা দেয়া হয়েছে।’

রাজ্যের সাবেক কংগ্রেস ও ন্যাশনাল কনফারেন্স জোট সরকার কাশ্মিরে অবৈধ অভিবাসীদের বাস করার ব্যবস্থা করেছিল বলেও হর্ষদেব সিং অভিযোগ করেন।

Bootstrap Image Preview