Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৩ বৃহস্পতিবার, মে ২০১৯ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

সারওয়াক রাজ্যে দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কোন্নয়নে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে: প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ

ওয়াহিদ সোহান, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১৬ মে ২০১৯, ০৯:১৪ PM
আপডেট: ১৬ মে ২০১৯, ০৯:৩৯ PM

bdmorning Image Preview


মালয়েশিয়া এবং বাংলাদেশের মধ্যে শ্রমবাজার নিয়ে যেই টানাপোড়ন ছিল সেটি কাটিয়ে সফলতার মুখ দেখতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার দ্বীপ রাজ্য সারওয়াকে প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ চৌধূরীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল সকাল ১১ টায় সারাওয়াকের গভর্নর তুন পেহিন সেরি হাজী আবদুল তাইব মাহমুদের কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন।    

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে দক্ষ শ্রমিক রফতানিসহ ‘দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্যিক সম্পর্কোন্নয়নে এক সাথে কাজকরার অনুরোধ করেন।

এ দিকে গভর্নরের সঙ্গে আলাপকালে প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যথেষ্ট এগিয়ে রয়েছে। বাংলাদেশ সারওয়াক রাজ্য প্রযুক্তিতে অভিজ্ঞ ও দক্ষকর্মী রপ্তানি করতে আগ্রহী।

এই সময় গভর্নর সম্মতি প্রকাশ করে বলেন, সারওয়াক তার নিজস্ব নিয়ম কানুন  মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলে আশ্বাস প্রদান করেন।

সারাওয়াক প্রদেশের গভর্নর তুন পেহিন সেরি হাজী আবদুল তাইব মাহমুদ  মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশের নির্যাতিত মুসলমানদেরকে বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়ে   মানবতার দৃষ্টান্তস্থাপন করেছে তার জন্য বাংলাদেশের মানুষকে সাধুবাদ জানান এবং সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস দেন। রোহিঙ্গা সমস্যার আশু সুষ্ঠু সমাধান প্রত্যাশা করেন গভর্নর।

এই সময় প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন, রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহিন এবং উপসচিব আবুল হোসেন, দূতাবাসের শ্রম কাউন্সিলর মো: জহিরুল ইসলাম, প্রথম সচিব শ্রম মো: হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল।

এ ছাড়া সারওয়াকের বাংলাদেশি কমিউনিটির সঙ্গেও বৈঠক করেছেন প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী।

তিনি সকলকে বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধি এবং অপপ্রচার থেকে দূরে থাকার  অনুরোধ করেন। বাংলাদেশের আই টি, কৃষি, স্বাস্থ্য এবং প্রযুক্তি ক্ষেত্রে দক্ষতা কাজে লাগানোর অনুরোধ জানান।

Bootstrap Image Preview