Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

সিএনজিকে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কা, ঘটনাস্থলেই প্রাণ গেল ৩ জনের

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ০৫:১৩ AM আপডেট: ১৬ আগস্ট ২০১৮, ০৫:১৩ AM

bdmorning Image Preview


রাজীবুল হাসান, ভৈরব প্রতিনিধি :

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে যাত্রীবাহী বাসের চাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালকসহ ৩ জন নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন ৩ জন ।

নিহতরা হলেন  ভৈরবের মিরারচর এলাকার অাহম্মদ অালী এর ছেলে বাহার উদ্দিন (৫৫), বাজিতপুরের পুরানখলার এলাকার ইদু মিয়ার সিএনজি চালক অাবুল হাসেম (১৮), একই উপজেলার পিরোজপুরের দক্ষিণ জুয়ারিয়া এলাকার অাঃ মালেক মিয়ার ছেলে হাফেজ মোশারফ হোসেন।

গতকাল বুধবার বিকাল পৌনে সাড়ে ৩ টার দিকে ভৈরব-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কে বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর ও কুলিয়ারচর উপজেলার আগরপুরের মধ্যবর্তী কুলিয়ারচর উপজেলার রামদি ইউনিয়নের কোণাপাড়া এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

হাইওয়ে পুলিশ ও প্রত্যদর্শীরা জানান, ভৈরব থেকে ছেড়ে আসা একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা যাত্রী নিয়ে কিশোরগঞ্জের যাচ্ছিল। অন্যদিকে যাতায়াত পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। পথে কুলিয়ারচর উপজেলার রামদি ইউনিয়নের কোণাপাড়া এলাকায় যাত্রীবাহী বাসটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে ওভারটেক করতে গিয়ে সিএনজিকে চাপা দেয়। এসময় বাসের নিচে চাপা পড়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়।এতে সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালক ও যাত্রীসহ তিনজন ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এছাড়া অাহত ৩ জনের মধ্য এক যাত্রী গুরুতর আহত হয়। গুরুতর অবস্থায় আহত ব্যক্তিকে বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

 

এদিকে ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের বাড়ি বাজিতপুর উপজেলায় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

ভৈরব হাইওয়ে থানার ওসি তরিকুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনার খবর শুনে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল থেকে নিহতে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে অাসা হয়। ধারণা করা যাচ্ছে বেপরোয়া গতিতে বাসটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাটিকে ওভারটেক করতে গেলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই সিএনজি অটোরিকশায় থাকা তিন জনের মৃত্যু হয়েছে।

Bootstrap Image Preview