Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

যমুনা নদীর পানি বিপদসীমার উপরে

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:১১ PM আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:১১ PM

bdmorning Image Preview
ফাইল ছবি


ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি:

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বগুড়ার ধুনট উপজেলায় যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে বন্যার আগম বার্তায় যমুনা পাড়ের মানুষের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সূত্রে জানা যায়, ধুনট উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের মাঝ দিয়ে বহমান যমুনা নদীর পানি ১৬.৭০ সেন্টিমিটার বিপদসীমা হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে। কয়েক দিন ধরে হুহু করে বাড়ছে পানি। গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে গতকাল শুক্রবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত যমুনা নদীর পানি বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

অব্যাহত পানি বৃদ্ধির ফলে বন্যার আগমন বার্তায় যমুনা পাড়ের মানুষের মাঝে শঙ্কা বিরাজ করছে। ইতি মধ্যে নদীর কুল উপচে পানি চরাঞ্চল ও বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের দিকে ধেয়ে আসছে। বন্যা মোকাবেলায় যমুনা পাড়ের মানুষ আগাম প্রস্ততি নিচ্ছে।

উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুল করিম আপেল বলেন, প্রতিদিনই যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে বন্যার আশংকা রয়েছে। তাই যমুনা নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে আশ্রিত ও চরাঞ্চলের মানুষের সার্বক্ষণিক খোজ খবর নেওয়া হচ্ছে। এছাড়া এ সব বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করা হচ্ছে।

বগুড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সহকারি প্রকৌশলী হারুনর রশিদ বলেন, যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধির পরিমান আগের চেয়ে কমে এসেছে। দুই এক দিনের মধ্যে পানি কমতে শুরু করবে। এ কারনে বন্যার কোন আশঙ্কা নেই। তারপরও বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধে সার্বক্ষনিক নজরদারি রাখা হয়েছে।

Bootstrap Image Preview