Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১১ বুধবার, ডিসেম্বার ২০১৯ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

শিশুকে নির্মমভাবে মারছে কাজের বুয়া, অফিসে বসে সিসি ক্যামেরায় দেখছেন বাবা!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:১০ PM
আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:১০ PM

bdmorning Image Preview


রাজধানীর শাহজাহানপুরের কর্মজীবী দম্পতির বাসায় দুই বছরের শিশুকে ৪৫ বছর বয়সী গৃহকর্মী নির্মম নির্যাতনের দৃশ্য ধরা পড়েছে সিসি ক্যামেরায়। পৈশাচিক নির্যাতনের এ ঘটনার ভিডিও দেখে শিউরে উঠতে হয়।

শিশুটির বাবা ইঞ্জিনিয়ার মো. আল আমিন সরকার একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন।আর মা মা লুৎফুন্নাহার উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা। এই দম্পতির একমাত্র শিশু আবদুল্লাহ আবতাই আয়াতের বয়স মাত্র দুই বছর। স্বামী-স্ত্রী দুজনেই চাকরি করায় আয়াত থাকত বাসার কাজের বুয়া শাহিদার কাছে।

সন্তানের আচরণ, বিশেষ করে বুয়াকে দেখে ভয়ে চমকে ওঠার বিষয়টি চোখে পড়ে বাবার। মনের মধ্যে তৈরি হয় একধরনের আশংকা। যে কারণে তিনি দ্রুত নিজের বাসায় সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করেন। আইপি ক্যামেরায় ধারণকৃত ফুটেজ তিনি নিজের স্মার্টফোনেই লাইভ দেখতে পারতেন। যে কারণে নিজের সন্তান চোখে চোখেই থাকত।

গত ১৪ নভেম্বর অফিসে বসে ভয়ংকর এক দৃশ্য চোখে পড়ল আল আমিন সরকারের। সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ে তার শিশুসন্তানকে বাসার কাজের বুয়া নির্মমভাবে নির্যাতন করছে।

অফিস বসে বাবা দেখতে পান, বাথরুম থেকে ঘরের ভেতর ছুড়ে ফেলে দিয়ে ওইটুকু শিশুকে একের পর এক লাথি মারতে থাকে কাজের বুয়া শাহিদা! এরপর ক্রন্দনরত শিশুকে সেভাবে ফেলে দিয়েই আবারও নিজের কাজে মন দেয় সে।

প্রযুক্তির কল্যাণে অফিসে বসে অতি আদরের সন্তানের ওপর এই ভয়াবহ নির্যাতনের দৃশ্য দেখে নিজেকে আর স্থীর রাখতে পারেননি ওই বাবা। সঙ্গে সঙ্গেই তিনি ছুটেন বাসার দিকে। পাষণ্ড কাজের বুয়ার হাত থেকে উদ্ধার করেন সন্তানকে।

এ প্রসঙ্গে শিশুটির বাবা আল আমিন সরকার বলেন, আমি একঅসহায় বাবা, যাকে দেখতে হয়েছে দুই বছরের সন্তানকে নির্মমভাবে মারধর করার দৃশ্য।এই নির্যাতন থেকে তাৎক্ষণিকভাবে আমার বাচ্চাটাকে রক্ষা করতে না পারার আক্ষেপে পুড়ছি আমি।

এ ঘটনায় গত ১৫ নভেম্বর রাতে শাহজাহানপুর থানায় শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০১৩ (সংশোধিত ২০১৮) এর ৭০ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন আল আমিন সরকার। অভিযুক্ত গৃহকর্মীকে গ্রেফতাার করেছে পুলিশ।

Bootstrap Image Preview