Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৪ সোমবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

দুনিয়ার যত বড়ই কাজ থাকুক সব ফেলিয়ে বাংলাদেশের খেলা দেখিঃ সাইফউদ্দিন

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১ মার্চ ২০১৮, ০৫:৫৫ PM আপডেট: ০১ মার্চ ২০১৮, ০৫:৫৫ PM

bdmorning Image Preview


মেজবা মিলন।।

কিছু দিন আগের কথা ঘরের মাঠে পেস বোলারদের খারাপ পারফম্যান্সের কারনে শ্রীলংকার কাছে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ হারে বাংলাদেশ।সেই ম্যাচে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন দুই ওভার বল করে দেন ৩৩ রান।আর এই হারের কারণ হিসাবে আঙুল উঠে সাইফউদ্দিনের দিকে।কিন্তু খেলা শেষে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছিলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনই এক দিন বাংলাদেশকে জিতাবে।

সাইফউদ্দিন ঘরের মাঠে ম্যাচ জিতাতে পারেননি হয়তো পরের মাঠে পারতেন।কিন্তু তাঁর আগেই এই উঠতি বয়সি বোলারের আশার আলো যেন নিভে যাচ্ছে। শ্রীলংকার মাটিতে আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজের ১৬ সদস্যের দলে তাকে রাখা হয়নি।

এখন দেশকে জয় এনে দেওয়া দূরে থাক দেশের জার্সি গায়ে জড়ানোই কঠিন হয়ে যাচ্ছে এই ডান-হাতি পেসারের পক্ষে।দলে না থাকায় কোন আক্ষেপ নেই তাঁর। তবে দেখে বুঝাই যাচ্ছিলো কষ্টে আছেন।দল থেকে বাদ পড়ে নিজের বর্তমান অবস্থা নিয়ে কথা বিডিমর্নিং এর সাথে সাক্ষাতে ছিলেন মেজবা মিলন।।

প্রশ্নঃ কেমন আছেন?

সাইফউদ্দিনঃ এতো আল্লাহামদুলিল্লা ভালো।

প্রশ্নঃভবিষ্যতে দেশের হয়ে খেলে আপনি ম্যাচ জিতাবেন এমন কথা কিছুদিন আগে মাহমুদউল্লাহ বলেছিলেন কিন্তু ত্রিদেশীয় সিরিজে খেলারই সুযোগ পেলন না।এই বিষয়ে কিছু বলুন।

সাইফউদ্দিনঃ না আসলে এইটাই জীবনের একটি অংশ।জাতীয় দল এমন একটা জায়গা যেখানে যে ভালো করবে সেই খেলার সুযোগ পাবে।আমি বিপিএলে যে রকম বোলিং করে আসছিলাম কিন্তু শ্রীলংকার বিপক্ষে শেষ দুইটা ম্যাচ ঐ রকম বোলিং করতে পারিনি।যার জন্য টিম কম্বিনেশনের জন্য আমাকে দলে রাখা হয়নি।আর এই বিষয় নিয়ে আমি মোটেও হতাশ নয়,কারণ আমি জানি ভালো করলে আবার দলে খেলার সুযোগ পাবো।এটা আমার ক্যারিয়ারের জন্য ভালো।আমি আমার ক্যারিয়ারের জন্য সংগ্রাম করছি এটা ভবিষ্যতে কাজে লাগাতে পারবো।সবার একটা খারাপ সময় আসে।তবে খারাপ সময় বললে ভুল হবে আসলে টি-টোয়েন্টি খেলা এমনি।আমি আসলে এই জিনিস গুলা শিখতেছি।

প্রশ্নঃ ত্রিদেশীয় সিরিজের দল ঘোষনার আগে কি ভেবেছিলেন আপনাকে দলে রাখা হবে না?

সাইফউদ্দিনঃ না আসলে আমি ঐ সব নিয়ে চিন্তা করি না।যেটা চলে গিয়েছে সেতা চলেই গিয়েছে।আমি সব সময় চিন্তা করি আমার কাজ শুধু খেলা।

প্রশ্নঃ বোলিংয়ের পাশা-পাশি ব্যাটিংয়েও ভালো করেন আপনি।তো তাঁর পরেও আপনাকে কেন দলে রাখা হলো না?

সাইফউদ্দিনঃ আসলে আমি ব্যক্তিগত ভাবে কখনই এই সব চিন্তা করি না।কারন টিম ম্যানেজমেন্ট মনে করবে যেটা ভালো সেটাই করবে। আমার কাজ শুধু ভালো করা আমি সেটাই করবো।জাতীয় দলে ভালো করতে পারিনি এখন ঘরোয়া লিগে ভালো করা। হয়তো এখন বোলিংয়ে ফর্ম খারাপ যাচ্ছে ইনশাল্লাহ এটা নিয়ে কাজ করছি আশা করি ভালো হয়ে যাবে।

প্রশ্নঃ বোলিংয়ে বেশ ছন্দে ছিলেন কিন্তু কি এমন হলো যার জন্য  এমন বাজে বোলিং হচ্ছে। এটা কি কোন চাপ না অন্য কিছু?

সাইফউদ্দিনঃ না আসলে হতাশা বলতে কিছু না। একজন খেলোয়াড় ছন্দে আসবে আবার ছন্দ হারাবে ক্রিকেটের এটাই নিয়ম।

প্রশ্নঃ ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের স্কোয়াডে যে বোলাররা আছেন তাদের বিষয়ে কিছু বলুন।

সাইফউদ্দিনঃ বেস্ট অব লাক, সবার আগে দেশ।তাঁর পর নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তা করবো। তাঁরা সবাই ভালো করবে ইনশাল্লাহ।

প্রশ্নঃ দলে নেই, বাংলাদেশের খেলা হলে কি করেন?

সাইফউদ্দিনঃ আমি যখন ছোট বেলা থেকে বাংলাদেশের খেলা দেখে আসছি তখন আগের দিন রাত থেকে ঘুম আসতো না।কখন খেলা শুরু হবে,কখন দেখবো।এই জিনিসটা তখনো কাজ করতো এখনো কাজ করে।একজন খেলোয়াড় হিসাবে,একজন দর্শক হিসাবে সমসময় চাই বাংলাদেশ জিতুক।কারন বাংলাদেশ জিতলে ঈদের মতো লাগে।বিষেশ করে যখন ছটো বেলায় খেলতাম।আশরাফুল ভাইয়ের ব্যাটিং দেখতাম ,মাশরাফি ভাইয়ের বোলিং খুব ভালো লাগতো।খেলা হলে বাইরে থেকে খাবার কিনে নিয়ে আসতাম বা রান্না করতাম খাবো আর খেলা দেখবো।তো জিনিস গুলো আগের মতো হয় না কারণ বন্ধুদের সাথে থাকি না।এখন অনেক কিছু চিন্তা করতে হয়।এখন নিজেকে ভালো করে দলে টিকিয়ে রাখা এই সব কিছুই কাজ করে। তাঁর পরেও বাংলাদেশের খেলা হলে দুনিয়ার যত বড়ই কাজ থাকুক সব ফেলিয়ে দিয়ে টিভির সামনে বসে পড়ি।

 প্রশ্নঃ শ্রীলংকার মাটিতে বাংলাদেশ কেমন পারফম্যান্স করবে?

সাইফউদ্দিনঃ সত্যি বলতে কি আমরা অনেক দিন টি-টোয়েন্টি জিতি না।তো আমি মনে করি টি-টোয়েন্টিতে ফেভারিট কেউ না। কারন শর্ট ভার্শন খেলা।যখন তখন খেলা ঘুরে যেতে পারে। ওয়ানডে বা টেস্টে খেলার মোড় ঘুরাতে একটু সময় পাওয়া যাই কিন্তু টি-টোয়েন্টিতে পাওয়া যায় না।এখানে ফেভারিট বলাটা ভুল হবে যে ভালো খেলবে সেই জিতবে।

Bootstrap Image Preview