Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ বুধবার, নভেম্বার ২০১৮ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

চোখ তুলে-আছড়িয়ে মাকে হত্যার অভিযোগ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৮, ০৯:১১ PM
আপডেট: ২৫ জুলাই ২০১৮, ১০:২০ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলায় বৃদ্ধা মা সালেহা বেগমকে (৮০) চোখ উপড়ে ও আছাড় মেরে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ছেলে আবুল কালাম বাহার মিজির (৪৫) বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ছেলে আবুল কালাম বাহার মিজিকে আটক করেছে পুলিশ।

উপজেলার গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়া গ্রামের মিজি বাড়িতে মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সালেহা বেগমের জামাই রুহুল আমিন জানান, তার শাশুড়ি সালেহা বেগম সোমবার রাতে ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। মঙ্গলবার ভোর রাতে তার ছেলে আবুল কালাম বাহার মিজি ঘরের দরজায় এসে মাকে ডাকাডাকি করে। বৃদ্ধা মা ছালেহা বেগম ছেলের ডাক শুনে ঘরের দরজা খুলে দিলে সে ঘরে ঢুকেই মায়ের ওপর হামলা করে। বেদম মারধরের এক পর্যায়ে তার মায়ের চোখ উপড়ে ফেলে এবং কোলে তুলে নিয়ে আছাড় দেয়।

এ সময় বৃদ্ধার আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

তিনি আরও জানান, আবুল কালাম বাহার মিজি দীর্ঘদিন কাতারে ছিল। দেশে ফিরে আসার পর তিনি হঠাৎ করেই মানসিকভাবে রোগগ্রস্ত হয়ে পড়ে। তিনি নিজে এক বছর ধরে তাকে পাবনার মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসা করিয়েছেন। গত তিন মাস পূর্বে সে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে আসলেও সম্প্রতি তার আবার সমস্যা দেখা দেয়।

স্থানীয়রা জানান, আবুল কালাম বাহার মিজি দীর্ঘদিন কাতারে থাকার সময় অর্থ উপার্জন করলেও দেশে ফিরে এসে দেখে সে নিঃস্ব। ফলে সে মানসিক হতাশায় ভোগে। অভিযোগ রয়েছে- তার নিকটজনরাই তার পাঠানো অর্থ নিয়ে গেছে। এই কারণে তার স্ত্রীও তাকে ছেড়ে ইতিপূর্বে চলে যায়।

এদিকে এ ঘটনায় নিহত সালেহা বেগমের জামাই রুহুল আমিন বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফরিদগঞ্জ থানার এসআই কাজী মো. জাকারিয়া জানায়, মাকে হত্যা করার অপরাধে আবুল কালাম প্রকাশ বাহার মিজিকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার কারণ অনুসন্ধান চলছে।

Bootstrap Image Preview