Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

এবার সেই সোমার বোনের বিরুদ্ধে পুলিশকে ছুরিকাঘাতের অভিযোগ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৬:২৭ PM আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৬:৪১ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে একজন নার্সকে ছুরিকাঘাত করার অভিযোগে গ্রেফতার বাংলাদেশি ছাত্রী মোমেনা সোমার (২৪) ছোট বোন আসমাউল হুসনা ওরফে সুমনার (২২) বিরুদ্ধে এক পুলিশ সদস্যের ওপর ছুরিকাঘাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় সুমনাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

আজ মঙ্গলবার ডিএমপির সহকারী কমিশনার (এসি) সুমন কান্তি চৌধুরী সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

সিটিটিসি সূত্র জানায়, গত ৯ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়ায় এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাত করে মোমেনা সোমা। এ ঘটনায় তাকে আটক করে স্থানীয় পুলিশ। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিটিটিসি সদস্যরা গত ১১ ফেব্রুয়ারি কাজীপাড়াস্থ মোমেনার বাসায় যান।

পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে মোমেনার ছোট বোন সুমনা আকষ্মিকভাবে সিটিটিসির এক সদস্যকে ছুরিকাঘাত করে। এ সময় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সুমন কান্তি চৌধুরী বলেন, সুমনার বাসায় তল্লাশি চালিয়ে একটি চাকু, একটি ল্যাপটপ ও দুইটি মোবাইল জব্দ করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সুমনা নিজেকে নব্য জেএমবির সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছে। অনলাইনে বিভিন্ন ভিডিও এবং ফেসবুক পেজ থেকে উদ্বুদ্ধ হয়ে সে নব্য জেএমবির সদস্য হয়েছে বলে সুমনা জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে একজন নার্সকে ছুরিকাঘাত করার অভিযোগে বাংলাদেশি ছাত্রী মোমেনা সোমাকে শুক্রবার গ্রেফতার করে হয়। ‘ইসলামিক স্টেট-আইএসের আদর্শে অনুপ্রাণিত’ হয়ে ২৪ বছর বয়সী সোমা তাদের বাসায় ঘুমন্ত রজার সিঙ্গারাভেলুর উপর ওই হামলা চালান বলে অভিযোগ করা হয়। আংশিক স্কলারশিপ নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় পড়তে যাওয়া সোমার পরিবার তাকে সবসময় ‘ব্রিলিয়ান্ট স্টুডেন্ট বা অসাধারণ মেধাবী ছাত্রী’ হিসেবেই জানেন। সোমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগে তারা হতবুদ্ধি হয়ে পড়েছেন বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার দ্য এজ পত্রিকা। আক্রান্ত ব্যক্তির পাঁচ বছরের মেয়ে জানিয়েছে, হামলা করার সময় সোমা বোরকা পরে ছিল। সোমাকে ‘স্বপ্রণোদিত জঙ্গি’ হিসেবে আখ্যায়িত করে তার বিরুদ্ধে একটি সন্ত্রাসী হামলা চালানোর অভিযোগ আনা হয়। সোমা লা ট্রোব ইউনিভার্সিটিতে ভাষাবিজ্ঞান বিষয়ে অধ্যয়নের জন্য ফেব্রুয়ারির ১ তারিখে মেলবোর্নে পৌঁছান। বিশ্ববিদ্যালয়টি তাকে ‘এক্সেলেন্স’ বা লেখাপড়ায় উৎকর্ষের জন্য ২৫% বৃত্তি প্রদান করেছিল। আক্রমণ করার আগে সোমা সিঙ্গারাভেলুর সঙ্গে মাত্র এক দিন একই বাসায় বসবাস করেছেন। তার পরিবার জানিয়েছে, সোমা বাংলাদেশে বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েছে এবং তার ইচ্ছা ছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হওয়া। সোমার মা এক বছর আগে মারা গেছেন এবং তার বাবা ইন্স্যুরেন্স কর্মকর্তা। সোমা এবারই প্রথম দেশের বাইরে গিয়েছে।
Bootstrap Image Preview