Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ শুক্রবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৪ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

ডান ও বাম ব্যবহারে করতে হয় যেসব কাজ

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬ আগস্ট ২০১৮, ০৮:৩০ PM
আপডেট: ০৬ আগস্ট ২০১৮, ০৮:৩০ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

মানুষ ভালো ও মন্দ দু’ধরনের কাজ করে থাকে। আবার এমন সব কাজ আছে যেগুলো ইচ্ছায় হোক আর অনিচ্ছায় হোক ভালো-খারাপ সব মানুষকেই করতে হয়। এ সব কাজে ডান ও বাম ব্যবহারে মানুষের প্রতিটি কাজই দু ধরণের হয়ে থাকে।

মানুষের এসব কাজের মধ্যে অধিকাংশ কাজই ডান থেকে শুরু করা বরকত ও কল্যাণের। আবার এমন কিছু কাজও রয়েছে যেগুলো বাম থেকে করায় রয়েছে কল্যাণ। কারণ প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ডান ও বাম থেকে কাজ করার ব্যাপারে দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন। হাদিসে এসেছে-

হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জুতা পরা, চিরুনি করা, ওজু করা এবং প্রত্যেক সম্মানজনক কাজ ডান থেকে করতে পছন্দ করতেন।’ (বুখারি ও মুসলিম)

হাদিসে সুস্পষ্টভাবে ডান হাতে পান করার নির্দেশের পাশাপাশি বাম হাতে পান করতে নিষেধ করা হয়েছে। হজরত ইবনে ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যখন তোমাদের কেউ খায় সে যেন ডান হাতে খায় ও পান কর সে যেন ডান হাতে পান করে। কারণ শয়তান তার বাম‎‎ হাতে খায় ও পান করে।’ (মুসলিম)

হজরত জাবের ইবনে আব্দুল্লাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‎আলাইহি‎‎ ওয়া সাল্লাম‎ বলেছেন, ‘তোমরা বাম‎‎ হাতে খেয়ো না, কারণ শয়তান বাম‎‎ হাতে খায়।’ (মুসলিম)

হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা আরো বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‎আলাইহি‎‎ ওয়াসাল্লাম‎ বলেছেন, ‘যে তার বাম‎‎ হাতে খায়, শয়তান তার সঙ্গে খায়। আর যে তার বাম‎‎ হাতে পান করে, শয়তান তার সঙ্গে পান করে।’ (মুসনাদে আহমাদ)

হজরত হাফসা রাদিয়াল্লাহু আনহা বর্ণনা করেন, নবি সাল্লাল্লাহু ‎‘আলাইহি‎‎ ওয়াসাল্লাম‎ খানা, পান করা ও পরিধানের জন্য তার ডান হাত ব্যবহার করতেন, এ ছাড়া অন্যান্য কাজের জন্য তিনি তার বাম‎‎ হাত ব্যবহার করতেন।’ (আবু দাউদ)

প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের দিক-নির্দেশনা অনুযায়ী মানুষের কাজ দুই ধরনের-

> এমক কাজ যা ডান ও বাম উভয় থেকে করা যায়। তবে এক্ষেত্রে যে কাজগুলো সম্মানের সেগুলো ডান থেকে করা উত্তম। যেমন-

- ওজু ডান থেকে শুরু করা - গোসলের সময় ডান পাশ আগে ধোয়া। - মসজিদে প্রবেশে ডান পা আগে দেয়া। - জুতা পরিধানেও ডান থেকে শুরু করা। - নিজ ঘরে প্রবেশেও ডান থেকে শুরু করা উত্তম।

- খাবার খাওয়া ও পরিবেশন ডান হাত ও ডান থেকে শুরু করা। - টয়লেট থেকে বের হতে ডান পা আগে বের করতে হয়। - মুসাফাহা ও মুআনাকা তথা কোলাকুলি ডান হাত ও ডান থেকে শুরু করা। - কোনো কিছু আদান প্রদানে ডান হাত ব্যবহার করা উত্তম।

> পক্ষান্তরে কোনো কাজগুলো বাম থেকে শুরু করতে হয় তা হলো-

- কাপড়, জুতা খুলতে বাম থেকে শুরু করতে হয়। - মসজিদ থেকে বের হতে বাম পা আগে বের করতে হয়। - টয়লেটে প্রবেশের সময় বাম দিয়ে প্রবেশ করতে হয়। - বাম হাতে ঢিলা-কুলুখ, টিসু পেপার ব্যবহার করতে হয়।ৎ

- ওজুতে উভয় পা ও নাক পরিস্কারে বাম হাত ব্যবহার করা উত্তম। - থুথু ফেলতে বাম দিকে ফেলতে হয়। - লজ্জাস্থান স্পর্শের প্রয়োজন হলে তাও বাম হাতে স্পর্শ করতে হয়।

মনে রাখতে হবে সম্মান ও কল্যাণের কাজ ডান থেকে করা এবং অপেক্ষা কৃত নিচু নেতিবাচক কাজগুলো বাম থেকে করাই উত্তম।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে হাদিসের নির্দেশনা অনুযায়ী দৈনন্দিন জীবনে কাজগুলো সম্পাদনে ডান ও বাম মেনে চলার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Bootstrap Image Preview