Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ শনিবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৫ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

উড়ন্ত বিমান থেকে ছিটকে গিয়েও যেভাবে প্রাণে বাঁচলেন পাইলট

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ মে ২০১৮, ১০:৫৭ AM
আপডেট: ১৬ মে ২০১৮, ১০:৫৭ AM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

চীনের যাত্রীবাহী একটি বিমান ৩২ হাজার ফুট ওপর দিয়ে উড়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ করেই তার সামনের কাচটি ভেঙে গেলে বাইরের বাতাসের চাপে বিমানের কো-পাইলটের শরীরের প্রায় অর্ধেকটা বাইরে চলে যায়। একসময় কো-পাইলট বিমানের বাইরের দিকে ঝুলতে থাকেন। সিচুয়ান এয়ারলাইনসের এই বিমানটি চীনের দক্ষিণ-পশ্চিমের চংকিং থেকে যাচ্ছিল তিব্বতের লাশা অভিমুখে যাত্রা করছিল।

পাইলট লিউ চুয়ানজিয়ান স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, মাঝ আকাশে উড়ন্ত অবস্থায় ককপিটের ভেতরে হঠাৎ প্রচণ্ড জোরে শব্দ হতে থাকে।

তিনি বলেন, আমি দেখলাম সামনের কাচটিতে ফাটল ধরেছে। তখন জোরে একটা শব্দ হয়। তার পর দেখি আমার কো-পাইলটের অর্ধেকটা বাইরে চলে যায়।সৌভাগ্যবশত কো-পাইলটের সিটবেল্ট বাঁধা ছিল বলে তাকে টেনে ককপিটের ভেতরে নিয়ে আসা সম্ভব হয়।

এর পর বিমানের ভেতরে তাপমাত্রা ও বাতাসের চাপ দ্রুত কমে যেতে শুরু করে। সেই সময় বিভিন্ন যন্ত্রপাতিও নিচে পড়তে থাকে বলে তিনি জানিয়েছেন।

লিউ বলেন, ককপিটের ভেতরে যা কিছু ছিল তার সবই বাতাসে ভাসতে থাকে। আমি রেডিওতে কিছু শুনতে পাচ্ছিলাম না। বিমানটি এত জোরে কাঁপতে লাগল যে আমি কোনো মিটারও পড়তে পারছিলাম না।

বিমানটি তখন মাঝ আকাশে, ৩২ হাজার ফুট ওপরে। যাত্রীদের তখন সকালের খাবার সরবরাহ করা হচ্ছিল। হঠাৎ করেই সেই সময় বিমানটি ২৪ হাজার ফুটে নেমে আসে।

এক যাত্রী চীনা রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমরা জানতাম না কি হয়েছে। কিন্তু আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। অক্সিজেনের মাস্ক নিচে নেমে আসে। কয়েক সেকেন্ডের জন্য মনে হচ্ছিল যে বিমানটি হঠাৎ করেই নিচের দিকে পড়ে যাচ্ছে। কিছুক্ষণ পর সেটি স্থির হয়ে যায়।

এর পর পাইলট ১১৯ যাত্রীকে নিয়ে বিমানটিকে দক্ষতার সঙ্গে চেংডু শহরের বিমানবন্দরের রানওয়েতে নামিয়ে আনতে সক্ষম হন। যাত্রীদের অনেককে পরে একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

Bootstrap Image Preview