Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১১ মঙ্গলবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

নীলার অভিমান

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৮ আগস্ট ২০১৭, ০৮:৫০ PM
আপডেট: ১৮ আগস্ট ২০১৭, ০৮:৫১ PM

bdmorning Image Preview


সাদিয়া হোসাইন লোপা-

নীলা বার বার ঘড়ি দেখছিল, আর চোখের পানি মুছছিল। নাহ, সাগর এখনো তাকে ফোন দেয়নি। কাল রাত থেকে সাগরের সাথে নীলার একবারের জন্যও কথা হয়নি। নীলা মনে মনে ভাবছে, আমি না হয় অভিমান করে বসে আছি, কিন্তু সাগর?

নীলার মনে পড়তে থাকে সাগরের সাথে তার  দুই বছরের রিলেশনের পর বিয়ে। রিলেশনের সময় সব কিছুতেই পাগলামী করতো সাগর। নীলার বান্ধবীরা সাগরকে নিয়ে খুব ক্ষ্যাপা তো, বলতো, যাক-বাবা, একটা বলদ জুটেছে তোর কপালে, তোকে পাগলের মত ভালোবাসে বলদটা। দেখিস নিজে মরে যাবে, তাও তোর চোখে পানি আসতে দিবে না।

নীলার কাছে আজকে এই কথাগুলো তীরের মত করে বিঁধছে। সাগর বিয়ের পর থেকেই কেমন জানি বদলে যাচ্ছিল। নীলা খেয়েছে কি না, ঘুমিয়েছে কি না, বাইরে থেকে ফিরেছে কিনা এসব নিয়ে সাগরের কোন চিন্তাই নেই। নীলা সাগরকে বলেই ফেললো, আগের মত ভালোবাসো আমায়? নাকি বিয়ে হয়েছে বলে ভাবছো অবহেলা করলেও নীলা আমারই থাকবে? সাগর জোরে করে বলে উঠলো, আমাকে কি তোমার অমানুষ মনে হয়? সারাদিন তো ঘরেই থাকো। আমার মতো অফিস করো? কাজের চাপ বুঝো? নিজের একটু কম পড়লো আর তাতেই আমি তোমাকে ভালোবাসলাম না? সারাক্ষণ কি তোমার পিছে পিছে ঘুরতে হবে? উফফ, আর পারছি না তোমার সাথে থাকতে, সারাদিন অভিযোগ। যাও তো যাও, চোখের সামনে থেকে যাও। আমাকে শান্তি দাও।

নীলা এসব শুনে শুধু একটা কথাই বললো-সাগর, জব কিন্তু আমিও পেয়েছিলাম। তুমি আর তোমার ফ্যামিলি চাওনি আমি জব করি। তুমি বলেছিলে, আমার বউ এত কষ্ট করবে তা আমি দেখতে পারবো না। আমিও না বলদের মতো বিশ্বাস করেছিলাম। চলে গেলাম, থাকো তুমি শান্তিতে। রাতের বেলায় রাগ করে নীলা তার বাপের বাড়িতে চলে গেল, অথচ সাগর এখন পর্যন্ত কোন খোজই নিলো না। নীলা রেডি হচ্ছে, দেখি আগের জবটা আবার পাই কি না, এই ভেবে।

Bootstrap Image Preview