Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ সোমবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৭ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

কণ্ঠশীলনের আয়োজনে রবীন্দ্রজয়ন্তী উদযাপিত

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ মে ২০১৮, ০৮:৪০ PM
আপডেট: ১১ মে ২০১৮, ০৮:৪০ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

সাহিত্যের বাচিক চর্চা ও প্রসার প্রতিষ্ঠান কণ্ঠশীলন রবীন্দ্রজয়ন্তী উপলক্ষে ‘জয় মৃত্যুঞ্জয়ের জয়’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। রবীন্দ্রনাথের কবিতা, গান ও তাঁকে নিয়ে আলোচনার এক বিমুগ্ধ সন্ধ্যার অবতারণা হয় অনুষ্ঠানে।

আজ শুক্রবার বিকাল ৫টা রাজধানী ঢাকার ২২২ নিউ এলিফ্যান্ট রোডে কণ্ঠশীলন কার্যালয়ে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়।

কণ্ঠশীলন অধ্যক্ষ মীর বরকত স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভারম্ভ হয়। এরপর আবৃত্তি, আলোচনা ও গানের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি এগিয়ে চলে।

ইলা রহমানের সঞ্চালনায় রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ রবীন্দ্রনাথ নিয়ে নাতিদীর্ঘ আলোচনা করেন।

তিনি বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ‘১৪০০ সাল’ কবিতাটি লিখেছিলেন একশত বছর আগে। একশত বছর পরে কি হতে পারে তা তিনি লিখে গিয়েছিলেন। তেমনি তাঁর অন্যান্য লেখাগুলো এখনও আমাদের সময়ের কথা বলে। মানুষের জীবনের সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, আনন্দ-বিরহ, সংগ্রাম সকল বিষয়ে তিনি লিখে গেছেন। যা আজও মনে হয় আমাদের নিজেরই কথা। এটিএম জাহাঙ্গীর ও শ্রেয়সী শ্রেয়ার গানের পাশাপাশি কণ্ঠশীলন সভাপতি গোলাম সারোয়ার আবৃত্তি করেন ‘শিশুতীর্থ’; রইস উল ইসলাম আবৃত্তি করেন ‘রবীন্দ্রোত্তর কয়েকজন যুবা’; বিলকিস আহমদ আবৃত্তি করেন ‘পঁচিশে বৈশাখ’; শফিক সিদ্দিকী আবৃত্তি করেন ‘কৃপণ’ এবং আফরিন খান আবৃত্তি করেন ‘ইচ্ছামতি’ কবিতা। আলোচনা, সংগীত ও আবৃত্তি শিল্পীরা নিজেদের মধ্যে ধারণ করে যে রসের সৃষ্টি করেছেন তা এক কথায় অনবদ্য। অনুষ্ঠান শেষে দর্শকশ্রোতা ভালো লাগার এক আবেশ নিয়ে বেরিয়ে আসেন। এমন এক সার্থক অনুষ্ঠান সাজানোর জন্য কণ্ঠশীলনকে সাধুবাদ।

Bootstrap Image Preview