Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ রবিবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৬ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

যেসব কারণে ফুলশয্যার বিছানা লাল গোলাপে সাজানো হয়

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭ এপ্রিল ২০১৮, ১০:৩০ PM
আপডেট: ০৭ এপ্রিল ২০১৮, ১০:৩০ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্কঃ বিয়ে একটা পবিত্র বন্ধন। বিয়ে মানে শুধু দুজন মানুষের নতুন জীবনের শুরু নয়, বিয়ে মানে দুটি মানুষের মনের মিলন  দুটি পরিবারও জড়িয়ে যায় নতুন এই বন্ধনে। এ জন্য বিয়ের দিনটি  প্রত্যেক নবদম্পতির কাছে খুব গুরুত্বের, ঠিক তেমনই বিয়ের প্রথম রাতটিও বহু প্রতিক্ষীত একটি রাত। তাই এই রাতটিকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য থাকে নানা অনুষ্ঠান ও নিয়মকানুন। জানা যায়, নবদম্পতি থাকার সেই বিছানা সাজানো হয় ফুল দিয়ে। সাধারণত লাল গোলাপের পাপড়ি দিয়ে সাজানো হয় বিছানা। কিন্তু অনেকে জানেনই না কেন লাল গোলাপ দিয়ে ফুলশয্যার বিছানা সাজানো হয়। জেনে নোওয়া জাক সেই কারণগুলি। রং ভালোবাসা ও আবেগের প্রতীক রং সাধারণ ভালোবাসা, সুখ, দুঃখের মতো অনুভূতিকে প্রকাশ করে। কিন্তু গোলাপ কেন ভারতীয় উপমহাদেশে ফুলশয্যার রাতে ব্যবহার করা হয়? কারণ লাল রং ভালোবাসার প্রতীক। গাঢ় রং ও সুগন্ধযুক্ত বৈশিষ্ট্যের জন্যই সাধারণত ফুলশয্যার বিছানা সাজাতে গোলাপ ব্যবহার করা হয়। ঘুমের ওষুধের মতো যদি বিয়ের এই রাত কারো কাছে প্রথম হয় তবে গোলাপ মেজাজ ভাল করতে সাহায্য করে। গোলাপে ঘুমের ওষুধের বৈশিষ্ট্যের জন্য পরিচিত। এটি রুমের আবহ পরিবর্তন করতে পারে। অ্যারোমাথেরাপি বিশেষজ্ঞদের মতে, গোলাপ মেজাজে প্রশান্তি আনতে সাহায্য করে। স্নায়বিক প্রশান্তি দেয় বর ও কনে বিয়ের সারা দিনই ব্যস্ত থাকে এবং সেই সঙ্গে বিয়ের রাত কেমন কাটবে এই বাড়তি চিন্তা যুক্ত হয়। কোন ব্যাপার না বর-কনে বিয়ের চাপে কতটা বিপর্যস্ত হয়েছে, গোলাপের গন্ধই তাদের স্নায়ুকে শান্ত করবে। এই ক্ষেত্রে গোলাপ প্রাকৃতিকভাবে চাপ দূর করতেও সাহায্য করে। যৌন উত্তেজক শারীরিক এবং মানসিকভাবে অন্তরঙ্গতার জন্য মেজাজকে ঠিক রাখতে গোলাপ প্রাকৃতিক যৌন উদ্দীপক হিসেবে কাজ করে। শুধু সাজসজ্জার জন্য নয়, বিয়ের রাতের জন্য দুধ ও পায়েসের অংশ হিসেবেও গোলাপ কাজ করে।  
Bootstrap Image Preview