Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৬ মঙ্গলবার, অক্টোবার ২০১৮ | ১ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

১ টুকরো ফিটকিরি, মুখের গন্ধ দূর করতে সক্ষম

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৯ জানুয়ারী ২০১৮, ০২:৩৫ PM
আপডেট: ১৯ জানুয়ারী ২০১৮, ০২:৩৫ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ফিটকিরি সাধারণত পানিকে পরিশোধিত করতে ব্যবহৃত হয়। কিন্তু এই ছোট্ট জিনিসটা আরও বিভিন্ন কাজে লাগে। আমাদের এই প্রতিবেদন থেকে জেনে নিন, কী কী রোগ থেকে দূরে থাকতে আপনাকে সাহায্য করে ফিটকিরি-

১। মুখের ভেতরে কোনও ঘা হলে, সেখানে ফিটকিরি লাগান। জ্বালা করতে পারে, কিন্তু তাড়াতাড়ি ঘা শুকাবে। তবে লালা গিলে ফেলবেন না। আর শিশুদের থেকে দূরে রাখবেন ফিটকিরি।

২। ব্যাকটেরিয়ার ফলে মুখে গন্ধ হয়। ফিটকিরি ব্যাকটেরিয়া দূর করতে সক্ষম। এক গ্লাস পানি ফোটান। তার মধ্যে এক চিমটি লবণ দিয়ে মেশান। এবারে ফিটকিরির গুঁড়া মেশান। মিশ্রণ ঠান্ডা হলে, তা দিয়ে কুলকুচি করুন।

৩। শিশুদের মাথায় প্রায়ই উকুন ও উকুনের ডিম হয়। পানিতে ফিটকিরি গুঁড়া মিশিয়ে তার মধ্যে একটু চা গাছের তেল (টি ট্রি অয়েল) মেশান। এবারে ১০ মিনিট ধরে মাসাজ করুন স্ক্যাল্পে। এর পরে শ্যাম্পু করে নিন।

৪। মুখে ব্রণ হলে ফিটকিরি ব্যবহার করতে পারেন। এক চামচ মুলতানি মাটি, দু’চামচ ডিমের সাদা অংশ ও এক চামচ ফিটকিরি গুঁড়ো দিয়ে প্যাক বানান। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

৫। দাড়ি কামানোর পরে বা কেটে গেলে ফটকিরি লাগিয়ে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৬। বয়সের ছাপ পড়লে এক টুকরো ফিটকিরি পানিতে ভিজিয়ে তা মুখে ঘষুন। তার পরে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

৭। ডিওডোর‌্যান্ট হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। ফিটকিরির গুঁড়োর সঙ্গে গন্ধরস মেশান। গন্ধরস বা মস্তকি এক ধরণের গাছের আঠা বিশেষ।

৮। পায়ে শিরায় টান পড়লে ফিটকারির গুঁড়ো, হলুদ এবং পানি দিয়ে একটি পেস্ট বানান। ব্যথা হলে সেখানে লাগান।

Bootstrap Image Preview