Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ শনিবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৫ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

সৌদি আরবে অভ্যুত্থানের ডাক; ক্ষমতা হারাতে পারেন বাদশাহ সালমান!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ মে ২০১৮, ০৮:১৯ PM
আপডেট: ২১ মে ২০১৮, ০৮:১৯ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

সৌদি আরবে অভ্যুত্থানের ডাক দিয়েছেন নির্বাসিত যুবরাজ প্রিন্স খালেদ বিন ফারহান। বর্তমান বাদশাহ সালমানকে ক্ষমতাচ্যুত করে ক্ষমতায় যেতে চাচাত দুই ভাইকে আহ্বান জানিয়েছেন নির্বাসিত এই যুবরাজ।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট আইকে দেয়া এক স্বাক্ষাৎকারে প্রিন্স ফারহান অন্যদের প্রতি এ আহ্বান জানিয়েছেন।

বর্তমান শাসক বাদশাহ সালমানের খামখেয়ালীপনা শাসনের কারণে দেশ ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি যুবরাজ আহমেদ বিন আব্দুল আজিজ ও মুকরিন বিন আব্দুল আজিজের প্রতি ক্ষমতা নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, সৌদি রাজপরিবার ও দেশের যে ক্ষয়ক্ষতি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের নির্বোধ ও খামখেয়ালিপনার মাধ্যমে হয়েছে তা মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। এজন্য যুবরাজ আহমেদ বিন আবদুল আজিজ ও মুকরিন বিন আবদুল আজিজের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

অভ্যুত্থানের ডাক দেয়ার পর তার পক্ষে দেশটির সেনাবাহিনী ও পুলিশের অনেক সদস্য ই-মেইলে সাড়া দিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

তার দাবি, আহমেদ এবং মুকরিন এক হলে রাজপরিবার, নিরাপত্তা বাহিনী এবং সেনাবাহিনীর প্রায় ৯৯ শতাংশ সদস্য ওই দুজনের পাশে থাকবে।

এর আগে গত মাসে দেশটি এক সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টা হয়। ওই সময় বর্তমান যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান গুলিবিদ্ধ হয় বলে বিভিন্ন খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। ওই ঘটনার পর থেকে গত ৩ সপ্তাহ ধরে যুবরাজ সালমানকে প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। ফলে মধ্যপ্রাচ্য ও রাশিয়ার বিভিন্ন গণমাধ্যম জানিয়েছে, অভ্যুত্থান চেষ্টার সময় তিনি মারা গিয়ে থাকতে পারেন। পরে সৌদি রাজপরিবারের পক্ষ থেকে এ বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। রাজপরিবার জানিয়েছে, যুবরাজ বর্তমানে মিশরে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, যুবরাজ প্রিন্স খালেদ বিন ফারহান ২০১৩ সাল থেকে জার্মানিতে রাজনৈতিক আশ্রয়ে রয়েছেন।

Bootstrap Image Preview