Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২১ বুধবার, নভেম্বার ২০১৮ | ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

নতুন ফতোয়া জারি, চিংড়ি খাওয়া হারাম

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬ জানুয়ারী ২০১৮, ০৮:৫৪ PM
আপডেট: ০৬ জানুয়ারী ২০১৮, ০৮:৫৪ PM

bdmorning Image Preview


আন্তজাতিক ডেস্ক-

ইসলামে চিংড়ি মাছ খাওয়া হারাম বা নিষিদ্ধ বলে ফতোয়া জারি করেছে ভারতের হায়দারাবাদের এক ইসলামিক সংগঠন।সেমিনারি জামিয়া নিজামিয়া নামের ওই সংগঠনটি বলেছে, মুসলিমদের চিংড়ি খাওয়ার অনুমতি নেই। এটি হারাম।

গত ১ জানুয়ারি ওই ইসলামিক ইউনিভার্সিটির প্রধান মুফতি মুহাম্মদ আজিমুদ্দিন এই ফতোয়া জারি করেন। যদিও জামিয়া নিজামিয়ার এই ফতোয়ার বিরোধিতা করেছেন বহু মুসলিম ধর্মগুরুও।

ফতোয়ায় বলা হয়েছে, চিংড়ি কোনও মাছ নয়। এটি আসলে ‘অর্থোপড’ অর্থাৎ পোকা-মাকড় প্রজাতির। তাই চিংড়িকে ইসলামে নিষিদ্ধ ‘মাকরুহে তাহরিমা’-এর আওতায় ফেলেছেন মুফতি মুহাম্মদ আজিমুদ্দিন। অর্থাৎ এই ধরনের খাবারকে ইসলাম ভাল চোখে দেখে না। ইসলামে তিন ধরনের খাবার রয়েছে, হালাল অর্থাৎ যা বৈধ, হারাম অর্থাৎ যা নিষিদ্ধ এবং মাকরু অর্থাৎ যা খারাপ বা ঘৃণ্য।

মাকরুর অধীনে থাকা খাবারকে আবার দুই ভাগে ভাগ করা হয়। একটি ভাগ হল মাকরু অর্থাৎ যে খাবার খারাপ তবে খাওয়া যেতে পারে। আর একটি হল ‘মাকরুহে তাহরিমা’, যা জঘন্য এবং খাওয়া উচিৎ নয় । চিংড়ি সেই ‘মাকরুহে তাহরিমা’-এর আওতায় পড়ে।

Bootstrap Image Preview