Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শনিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী স্বামীসহ নেপালে বিমান বিধ্বস্তে আহত

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ মার্চ ২০১৮, ০৮:২৯ PM আপডেট: ১৩ মার্চ ২০১৮, ০৮:২৯ PM

bdmorning Image Preview


এনায়েত উল্লাহ, গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:

ঢাকা থেকে নেপালের কাঠমান্ডুর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া ইউএস বাংলার একটি বিমান কাঠমান্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ল্যান্ডিং করার সময় বিধ্বস্ত হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় সাভারের গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের ছাত্রী কামরুন্নাহার স্বর্ণা ও তার স্বামী মেহেদী হাসান অমিয় নেপালে বিধ্বস্ত ইউএস বাংলা বিমানের যাত্রী ছিলেন। দুর্ঘটনায় তারা গুরুতর আহত হয়েছেন।

জানা যায়, কামরুন্নাহার স্বর্ণা ও তার স্বামী মেহেদী হাসানকে নেপালের একটি হাসপাতালে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। কামরুন্নাহার স্বর্ণা এমবিবিএস ১৮তম ব্যাচ এর ছাত্রী। স্বর্ণার শ্বাসপ্রশ্বাস জনিত সমস্যা ও মেহেদী হাসানের রিবস ও মাথায় আঘাতের খবর পাওয়া গেছে।

স্বর্ণার পারিবার জানায়, তারা ভ্রমণের উদ্দ্যেশে নেপাল যাচ্ছিলেন। স্বর্ণার গ্রামের বাড়ি সিলেটে। তার স্বামীর বাড়ি গাজীপুরের শ্রীপুরে। সে পেশায় ব্যবসায়ী।

উল্লেখ্য, ঢাকা থেকে নেপালের উদ্দেশ্যে ৬৭ যাত্রী ও ৪ জন ক্রু নিয়ে ছেড়ে যায় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের দেশ কিউ-৪০০ মডেলের বিমানটি। বিমানটিতে মোট ৭১ জন আরোহীর ৩৩ জন নেপালি, ৩২ জন বাংলাদেশি এবং একজন করে চীনা ও মালয়েশীয় নাগরিক ছিলেন। ৬৭ জন যাত্রী এবং ৪ জন কেভিন ক্রু মিলিয়ে ৭১ জনের মধ্যে ৫০ জনই মারা গেছেন বলে জানিয়েছে রয়টার্স। এছাড়া সিলেট রাগিব রাবেয়া মেডিকেলের ১৩ শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

Bootstrap Image Preview