Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ সোমবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৭ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

পর্যটকদের বিনোদনে কুয়াকাটায় ম্যাজিক বোর্ড

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৭:৫২ PM
আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৭:৫২ PM

bdmorning Image Preview


জাহিদ রিপন,পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পর্যটকদের বিনোদনে কুয়াকাটায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে ম্যাজিক বোর্ড। ব্যাক্তি উদ্যোগে সৈকতের জিরো পয়েন্ট থেকে পূর্বদিকে স্থাপিত এ বোর্ডটিকে ঘিরে প্রতিদিন সকাল থেকে শেষ বিকেল পর্যন্ত ভীড় করছে স্থানীয়সহ পর্যটক। শিশুদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এটি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সৈকত সংলগ্ন ইকোপার্ক, গঙ্গামতির লেক ও ম্যানগ্রোভ ফরেষ্ট, নারিকেল কুঞ্জ, মিশ্রী পাড়ায় অবস্থিত এশিয়ার সর্ব বৃহৎ বৌদ্ধ বিহার, মিনি সুন্দরবন খ্যাত ফাতরার বন, মম্বীপাড়ার সৎ সঙ্গের মন্দির ও লেম্বুর চরের শুঁটকি পল্লীতে দেশ-বিদেশী পর্যটকদের ভীড় থাকে। সৈকতে বিনোদনের তেমন কোন ব্যবস্থা না থাকলেও এখন সৈকতে পর্যটকদের বিনোদনের জন্য ওয়াটার বাইক, বিচ বাইক রয়েছে।

সৈকতে আগত ভ্রমন পিপাসুদের বিনোদনের জন্য স্ঞাপিত ম্যাজিক বোর্ড এতে ভিন্নমাত্র যোগ করেছে বলে করছে স্থানীয়রা। ম্যাজিক বোর্ডা মালিক জাকির চৌধরী জানায়, দেশের বিভিন্ন পার্কে এ ম্যাজিক বোর্ড রয়েছে। কুয়াকাটার সৈকতে তেমন কোন বিনোদনের ব্যবস্থা নেই। তাই প্রায় ৮ লাখ টাকা ব্যয় করে এটিকে স্থাপন করা হয়। প্রতিদিন এ থেকে হাজার টাকা আয় হয়।

কুয়াকাটায় ভ্রমনে আসা গৃহীনি মিথিলা আক্তার জানান, পরিবার পরিজন নিয়ে আমি বেশ কয়েক বার এখানে এসেছি। সৈকতে বিনোদনের তেমন কোন ব্যবস্থা ছিলনা। তবে এ ম্যাজিক বোর্ডটি স্থাপন করায় শিশুদের বিনোদনে নতুন মাত্র যোগ হয়েছে। ওয়াটার বাইক মালিক লিটন খান জানান, পর্যটকদের বিনোদনের পাশাপাশি আমাদের আয়ও হচ্ছে। এ সৈকতকে আরো সাজানো হলে পর্যটকরা এখানে এসে বিনোদন পাবে পর্যটকরা।

কুয়াকাটা পৌর মেয়র আ. বারেক মোল্লা জানান, এ ম্যাজিক বোর্ডটি স্থাপনা করায় সৈকতের শোভা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ ধরনের উদ্যোক্তাদের সাধুবাদ জানাই। ট্যুরিষ্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোন’র ওসি মনিরুজ্জামান জানান, কুয়াকাটার সৈকত সহ বিভিন্ন বিনোদন স্পটে আমাদের ট্যুরিষ্ট পুলিশের টহল রয়েছে।

Bootstrap Image Preview