Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ শনিবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৫ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

'বিয়ে করার জন্য এসেছি, বাহারুলের ক্ষতি চাই না'

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ মে ২০১৮, ০৭:২৯ PM
আপডেট: ১৭ মে ২০১৮, ০৭:২৯ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ফেসবুক প্রেমের সূত্র ধরে রাজবাড়ীতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে বসেছেন ঢাকার আজিমপুর এলাকার মনিষা (২৬) নামের এক তরুণী।

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার পাট্টা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পাট্টা গ্রামের মো. তোমছেলের ছেলে বাহারুল (১৯) ফেসবুকের মাধ্যমে ঢাকার আজিমপুর এলাকার মনিষা (২৬) নামের ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এরই সূত্র ধরে গত শুক্রবার অনার্স প্রথম বর্ষে পড়া প্রেমিকের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে চলে আসেন তরুণী। পরে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে সেখান থেকে তার এক আত্মীয়র বাড়িতে ওঠেন তিনি।

সেখানে চারদিন থাকার পর গতকাল বুধবার ওই প্রেমিকের বাড়িতে এসে অনশনে বসেন তরুণী।

খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানান তরুণী। পরে থানা পুলিশ ওই তরুণীর নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে তাকে থানায় নিয়ে যায়।

ওই প্রেমিকার দাবি, ফেসবুকে বয়স লুকিয়ে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে বাহারুল। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে তিনি বিষয়টি নিশ্চিত হন।

বাহারুলের বয়স এতো কম হলে আমি তার বাড়িতে আসতাম না বলে জানান ওই প্রেমিকা।

তিনি বলেন, ও আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছে। আমি কোনো মামলা করতে চাই না। বাহারুলের কোনো ক্ষতি হোক আমি চাই না। আমি তাকে ভালোবেসেছি। তাই বিয়ে করার জন্য এখানে এসেছি। এসব কথা বলে কেঁদে ফেলেন প্রেমিকা।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা) সার্কেল মো. ফজলুল করিম বলেন, মেয়েটির নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে আমরা তাকে থানায় নিয়ে আসি এবং তাকে আইনগত সহায়তার কথা বলি। সে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে না বলে আমাদের জানায়। পরে তার নিকট আত্মীয়দের জিম্মায় তাকে দেয়া হয়েছে।

Bootstrap Image Preview