Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২০ শনিবার, অক্টোবার ২০১৮ | ৫ কার্তিক ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

গভীর রাতে হল থেকে ছাত্রীদের বের করে দেওয়া সেই প্রভোস্ট যুব মহিলা লীগের সদস্য

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০১৮, ১২:৪৫ PM
আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০১৮, ১২:৪৫ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক-

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হলের প্রভোস্ট যুব মহিলা লীগের সদদস্য অধ্যাপক সাবিতা রেজওয়ানা রহমান। তার হল থেকে কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে অন্তত ২০ জন আবাসিক ছাত্রীকে বের করে দিয়েছে হল কর্তৃপক্ষ। রাত সাড়ে ১১ টা থেকে রাত সাড়ে ১২ টার মধ্যে পর্যায়ক্রমে ৯ জন ছাত্রী হল থেকে বেরিয়ে যান। তবে তারা ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত নেত্রী নাকি কোটা সংস্কার আন্দোলনের পক্ষের শিক্ষার্থীরা- সে বিষয়টি নিশ্চিত করে কেউ কিছু বলেননি।

হল থেকে একজন আবাসিক শিক্ষার্থী জানিয়েছেন, গত ১০ এপ্রিল রাতে কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে হলের ভিতর ছাত্রলীগ সভাপতি ইফফাত জাহান এশা’র গলায় জুতার মালা পরিয়ে দেয় আন্দোলনের পক্ষের সাধারণ ছাত্রীরা। ওই ঘটনার সঙ্গে ২৬ জন ছাত্রী জড়িত রয়েছে বলে হল কর্তৃপক্ষ চিহ্নিত করে। এই ২৬ জনের অভিভাবকদের গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে ডেকে আনা হয়। অভিভাবকদের কাছে ছাত্রীদের তুলে দেয়া হয়।

যুব মহিলা লীগের পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রীয় কমিটি সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ১২১ সদস্যবিশিষ্ট। যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ড. সাবিতা রেজওয়ানা বলেন, অনেক মেয়ে ফেক আইডির মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হলের বিরুদ্ধে নানা গুজব ছড়াচ্ছে। তাই অনেককে ডেকে এনে মোবাইল চেক করা হয়েছে। আর কেউ যদি হল ছেড়ে কারো রিলেটিভের বাসায় যায় তাহলে কার কী করার আছে।

তবে কারও মোবাইলে সন্দেহজনক কিছু পেয়েছেন কিনা- জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি লাইনটি কেটে দেন। পরবর্তীতে কয়েকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ না করে মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে দেন। এ বিষয়ে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেন, এগুলো গুজব। এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে একটি গোষ্ঠী এসব গুজব ছড়াচ্ছে। এসব গুজবে কান দেয়া যাবে না।

Bootstrap Image Preview