Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৪ সোমবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

ইটভাটার গ্যাসে নষ্ট হয়ে গেছে নওগাঁর শতাধিক বিঘা জমির বোরো ধান

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১২:৫১ PM আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১২:৫১ PM

bdmorning Image Preview


পারভেজ রহমান, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

দিনরাত কঠোর পরিশ্রম আর সার পানির সঠিক ব্যবহার করায় ভালোই হয়েছিলো বোরো মৌসুমের ধানের আবাদ। নওগাঁর মান্দায় ইটভাটার গ্যাসে পুড়ে নষ্ট হয়ে গেছে শতাধিক বিঘা জমির বোরো ধান। উপজেলার মল্লিকপুর ও শ্রীরামপুর মাঠে এ ক্ষতিসাধন হয়েছে। ক্ষেত জুড়ে ফসল পুড়ে যাওয়ায় এখন কপাল চাপড়াচ্ছেন চাষিরা। ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা গত শনিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছেন।

গত রবিবার (১৫ এপ্রিল) বিকেলে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মুহা. ইমাজ উদ্দিন প্রামানিক এমপি ক্ষতিগ্রস্থ মাঠ দুইটি পরিদর্শন করেন। তিনি এ বিষয়ে জরুরি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, শুধু বোরো ধানের খেতই নয় ইটভটার গ্যাসে নষ্ট হয়ে গেছে আশেপাশের গ্রামের মৌসুমি ফল আম, লিচু ও কলা গাছের ক্ষতি হয়েছে।

কৃষক রফিকুল ইসলাম বলেন, শ্রীরামপুর মাঠে চলতি মৌসুমে তারা বোরো ধানের চাষ করেছেন। ধানের র্শীষ বেরিয়েছে ১০-১৫ দিন পরেই ধান কাটা শুরূ হবে। এ অবস্থায় ইটভাটার গ্যাসে তাদের খেতগুলো পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গেছে।

কৃষক শহিদুল ইসলাম বলেন, ইটভাটার কারণে আম, লিচু গাছে পচন ধরেছে। কলা গাছ মরে যাচ্ছে। আমরা মাঠ থেকে ইটভাটার অপসারণ চাই।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম প্রামানিক জানান, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে ক্ষতিগ্রস্থ মাঠের খেত পরিদর্শন করেছেন। এসময় কৃষকদের দাবির প্রেক্ষিতে তাৎক্ষণিক পৃথক তিনটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার মুশফিকুর রহমান বিডিমর্নিংকে বলেন, অভিযোগের পর ঘটনা তদন্তে উপজেলা কৃষি অফিসারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছ। তদন্তে প্রমাণ পেলে কৃষি জমি রক্ষায় দায়ী ইটভাটার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Bootstrap Image Preview