Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শনিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন জাফর ইকবাল

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০১৮, ০৯:৪৭ PM আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৮, ১০:১৩ PM

bdmorning Image Preview


আরাফ আহমদ, শাবি প্রতিনিধি:

সিলেটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে জনপ্রিয় লেখক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, আল্লাহ আমাকে বাঁচিয়েছেন। নিশ্চয় তিনি আমাকে দিয়ে ভালো কিছু করাতে চান। এখানেও একজন হয়তো আছে। যে ভাবছে, পারলাম না আরেকবার অ্যাটেম নিতে হবে। তার উদ্দেশে বলছি, আমার সঙ্গে কথা বলতে আসো। অস্ত্রটা বাসায় রেখে আসো। আমি শুনতে চাই, কেন তোমার এত কষ্ট।

বুধবার দুপুরে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরেছেন জনপ্রিয় লেখক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। তাকে বরণ করে নিতে বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ‘সাধাসিধে কথা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সেখানেই এসব কথা বলেন তিনি।

অনুষ্ঠানে ছাত্র-শিক্ষকসহ মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে জাফর ইকবাল বলেন, দেশের মানুষ, আমার প্রিয় ছাত্র-ছাত্রীরা আমাকে কতোটা ভালোবাসা দিয়েছে তা আমি ফিরিয়ে দিতে পারবো না। আমি তাদেরকে আজীবন ভালোবাসবো। আমি জানিনা তোমাদের ভালোবাসার প্রতিদান দিতে পারবো কিনা।

জনপ্রিয় এই লেখক তার বক্তৃতায় একাধিকবার পবিত্র কোরআনের আয়াত উদ্ধৃতি করেন। তার ওপর হামলাকারী ফয়জুল হাসানসহ বিপথে যাওয়া তরুণ সমাজের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তুমি যদি একটা মানুষকে হত্যা করো তবে সমগ্র মানবজাতিকে হত্যা করলে। কুরআন শরিফে এই মহান বাণী রয়েছে। যারা তোমাকে বুঝাচ্ছে তারা বিভ্রান্ত করছে। তোমরা যদি একটা মানবজাতিকে বাঁচাও তবে সমগ্র মানবজাতিকে বাঁচালে। যারা ছুরিকাঘাতের পর আমাকে এখান থেকে তুলে হাসপাতালে পাঠিয়েছ তারা শুধুই আমাকে বাঁচাওনি সমগ্র মানবজাতিকে বাঁচিয়েছ। আমি তোমাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি সিএমএইচ ও ওসমানী হাসপাতালের চিকিৎসকদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি ধন্যবাদ জানাচ্ছি অন্যান্যদের।

আমাকে মেরে যুবকটি বেহেশতে যেতে চেয়েছিল জানিয়ে হামলাকারীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তোমাকে যে মারতে পাঠিয়েছে, তার ছেলে-মেয়েরা হয়তো লেখাপড়া করছে। আর তোমার অবস্থা কী? দেখ বাবা-মা ও স্বজনরা রিমান্ডে। হামলাকারীর দলের কেউ হয়তো এখানে দাঁড়িয়ে কথা শুনছে। তাদের বলি, তোমাদের কোনো কিছু জানা, বোঝার থাকলে আমার সঙ্গে দেখা করো। কথা বল।

জাফর ইকবাল বলেন, তাদেরকে বলছি, যারা আমাকে হত্যা করতে চাও তোমরা আমার বিভাগে সরাসরি আস। আমি তোমাদের কিছুই করবো না। শুধু ছুরিকাঁচি রেখে আস। আমার সঙ্গে কথা বল, কী কষ্ট তোমাদের মধ্যে মানুষ হত্যা করতে চাও। এই সুন্দর পৃথিবীতে সুন্দরভাবে বসবাস করতে না চাওয়ার কারণ কী? আমি জানতে চাই।

তিনি বলেন, তোমরা আমার সামনা-সামনি বসে কথা বল। তোমাদের বিভ্রান্তি দূর করা প্রয়োজন। অন্যথায় তোমরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কারাগারে যেতে হবে। রিমান্ডে যেতে হবে। সাজা ভোগ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. ফরিদ উদ্দিন আহমদ, জাফর ইকবালের স্ত্রী ড. ইয়াসমীন হক, সাংবাদিক ও কলামিস্ট আবেদ খান, বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ইলিয়াস উদ্দিন বিশ্বাস এবং কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মো. রেজা সেলিমসহ।

Bootstrap Image Preview