Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৩ রবিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

শেরপুরে সন্তান নষ্টের অভিযোগে মামলা

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০১৮, ১০:২৯ AM আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৮, ১০:২৯ AM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্ক:

শেরপুর সদর উপজেলার কামারিয়া ইউনিয়নের খুনুয়া পালপাড়া গ্রামে যৌতুকের দাবিতে স্বামী দেলোয়ার হোসেনের (৩৫) শারীরিক নির্যাতনের শিকার গভবর্তী বুলি বেগম (২৬) এর গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়ে যাওয়ার অভিযোগে গত ফ্রেব্রুয়ারি স্বামীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায় , সদর উপজেলার খুনুয়াচর পাড়া গ্রামের দরিদ্র বসর উদ্দিনের মেয়ে মোছা. বুলি বেগমকে পার্শ্ববতী খুনুয়া পালপাড়া গ্রামের মৃত ফরহাদ আলীর ছেলে দেলোয়ার হোসেনের সাথে আড়াই লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য্য করে বিয়ে হয় । দাম্পত্য জীবনে ঘর সংসার চলার কিছুদিন না যেতেই বুলি বেগম সন্তান গর্ভধারন করে ।

বেশ কিছুদিন পর গত ১৬ ফ্রেব্রুয়ারি বুলি বেগম যৌতুকের টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায়, দেলোয়ার গভবর্তী স্ত্রীর পেটে লাথি মারে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। এতে তার শরীরীক অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে তাকে শেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে । পরে তার পেটের মরা সন্তানকে অস্ত্রোপাচারের মাধ্যমে অপসারণ করা হয়।

এ ঘটনায় বুলি বেগম নিরুপায় হয়ে গত ২৬ ফ্রেব্রুয়ারি তার পেটের সন্তানকে নষ্ট করা এবং তাকে শারীরীক নির্যাতনের অভিযোগ এনে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতে পাষন্ড স্বামী দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে আদালতে মামলা দায়ের করেন । পরে আদালত ভারপ্রাপ্ত কমকর্তা শেরপুর সদর থানাকে মামলাটি এফআইআর হিসেবে গন্য করার আদেশ দেন।

এদিকে মামলা দায়েরের পর থেকে যৌতুক লোভি পাষন্ড স্বামী দেলোয়ার হোসেন স্ত্রী বুলি বেগম কে প্রাণনাশের হুমকি সহ বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে বলে বুলি বেগম অভিযোগ করেছেন । এব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাহায্য কামনা করেছেন।

Bootstrap Image Preview