Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৩ রবিবার, সেপ্টেম্বার ২০১৮ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

সপ্তাহের ব্যবধানে পানের মূল্য বৃদ্ধি, বিপাকে ভোক্তারা 

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৪:২৮ PM আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ০৪:২৮ PM

bdmorning Image Preview


হারুন উর-রশিদ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

পান মানুষের কাছে অতি পরিচিত একটি নাম। যে কনো খাবারের পরে পান না খেলে মানুষ যেনো অসস্তিতে ভোগে। সখের বশবর্তি হয়েও অনেকে পান খান। গ্রামের যে কোনো বাড়ীতে বেড়াতে গেলেও অতিথিকে কমপক্ষ্যে পান খেতে দেওয়া হয়। সেই পানের বাজারে হঠাৎ এক সপ্তাহ ধরে যেনো আগুন লেগেছে এতে বিপাকে পড়েছেন ভোক্তারা।

ছোট ছোট পান বিক্রি হচ্ছে ১শত ৫০টাকা শ’দরে (৬০টি পান)। একটু ভালো পান বিক্রয় হচ্ছে ২শত টাকা শ’দরে আর বড় বড় পান বিক্রয় হচ্ছে ৩শত টাকা শ’দরে।

সরেজমিনে ফুলবাড়ী বাজার ঘুরে জানাগেছে, পৌর শহরের খুচরা পান দোকান গুলিতে ছোটো পানের খিলি বিক্রি হচ্ছে ৫ টাকা দরে। অনেকে আবার পানের দাম বৃদ্ধিতে খিলিপান বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে।

ফুলবাড়ী বাজারের পাইকাড়ী পান ব্যবসায়ী তরনি ও ওয়াকিল জানান, আগে যে পান ৬০টাকা বিড়া (৬০)শদরে ছিল এখন তা দাম বেড়ে ২৫০টাকা, ১০-১৫ টাকার পান ৫০-৭০টাকা, ৩০-৪০টাকার পান ৮০-৯০টাকা হয়েছে। রাজশাহী, বিরামপুর, ভেড়ামারা, চুয়াডাঙ্গা থেকে সচারাচর পান আমদানী হয়ে থাকে। তবে প্রকৃতিক কারণে ঘনকুয়াশায় পানের বরজে ছত্রাকের আক্রমন বেশী হওয়ায় পান নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সে কারণে মোকামেই পানের মূল্য অনেক বেশী। তাই বেশী দামে বিক্রয় করতে হচ্ছে।

ফুলবাড়ী চৌধুরী মোড়ের খুচরা পান বিক্রেতা সাদ্দাম হোসেন বলেন, গত এক সপ্তাহ ধরে পানের দাম প্রতি শয়ে দিগুন মূল্য হয়েছে। সে কারণে খিলি পান পাঁচ টাকার নিচে বিক্রি করা যাচ্ছে না। যা আগে আমরা তিন টাকায় বিক্রি করেছি। এছাড়া পানের দাম বৃদ্ধি পাওয়াতে খিলি পান বিক্রি কমে গেছে এতে অনেক খিলি পানের দোকান বন্ধ হওয়ার উপক্রম।

অপরদিকে ফুলবাড়ী হাজীর মোড়ের মোতালেব হোসেন বলেন,  তিনি প্রতিদিন ৩০-৩৫ খিলি পান খান কিন্তুু বর্তমানে পানের মূল্য বেড়ে যাওয়ায়, আগের তুলনায় কম খাচ্ছেন। একই কথা বলেন চৌধুরী মোড়ের ফ্রেন্ডস কসমেটিক্স্র এন্ড গিফ্ট কর্নার এর সত্বাধীকারী আল-মামুন।

Bootstrap Image Preview