Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৮ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বার ২০২২ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

আম্পায়ারদের নিয়ে যা বললেন সাকিব

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২ নভেম্বর ২০২২, ১০:১৯ PM আপডেট: ০২ নভেম্বর ২০২২, ১০:১৯ PM

bdmorning Image Preview


ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ মানেই কিছু না কিছু বিতর্ক যেন ছড়াবেই! বাংলাদেশের সঙ্গে অ্যাডিলেড ওভালের ম্যাচ শেষেও জোরালো না হোক- বিতর্ক একটা উঠলোই। বিশেষ করে বৃষ্টি শেষে বাংলাদেশ দলকে যে ৯ ওভারে ৮৫ রানের লক্ষ্য দেওয়া হলো- সেটা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।

ভারতের কাছে ৫ রানে হারের পর বুধবার সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে সাকিবের প্রতিক্রিয়াটাও জানার চেষ্টা হলো। সংগত কারণেই কোড অব কনডাক্টে থাকায় বিস্তারিত বলার সুযোগ ছিল না বাংলাদেশ অধিনায়কের। তিনি বরং নিজের মতো করেই ছোট করে উত্তর দিলেন।

সাকিবকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল বৃষ্টির বিরতিতে কী কথা হয়েছিল আম্পায়ারের সঙ্গে। আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত মানতে আপত্তি ছিল কিনা বাংলাদেশ অধিনায়কের? তখন সাকিব পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিলেন, ‘আমাদের না মানার কোনো সুযোগ ছিল?’

তারপর অবশ্য সাকিব অন দ্য রেকর্ড বলেন, ‘আম্পায়ার দুই অধিনায়ককে ডেকেছিলেন। তারা আমাদের জানিয়েছিলেন পরিবর্তিত লক্ষ্য এবং নিয়ম কী। আমাদের কত ওভার আরও খেলতে হবে এবং আমাদের লক্ষ্য কী হবে। এটুকুই।’ -এভাবেই দুটো কথা বলে থেমে গেলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক!

বৃষ্টি আইন নিয়ে মাথায় চিন্তা ছিল কিনা এ নিয়ে সাকিব বলেন, ‘না, ওরকম চিন্তা আমাদের ছিল না। আমি যেটা প্রথম থেকেই বলে আসছি যে এটা ভারতের পক্ষেও সমান-সমান ছিল। দুই দলই চাচ্ছিল যে খেলাটা হোক। আমি প্রেফার করি ২০ ওভারের পুরাটাই যেন হয়। এটা আমাদের জন্যই ভালো আমি সবসময় মনে করি। আমরা কোনো মুহৃর্তেই চিন্তা করিনি যে বৃষ্টি আইন আসতে পারে। বৃষ্টি তো হওয়ার কথাই ছিল না, তাও হয়েছে। আমরা আশাবাদী ছিলাম যে পুরা ম্যাচটাই হবে। কিন্তু যেটা হয়েছে আমার কাছে মনে হয় না খুব ভিন্ন কিছু করেছে খেলার ক্ষেত্রে কিংবা আমাদের পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে। বৃষ্টিটা না হলে আমাদের যে মোমেন্টাম টা ছিল ওটা ভালো থাকতে পারতো। এটাও আসলে বলার কোনো নিশ্চয়তা নেই।’

সাকিব আরও যোগ করলেন, ‘দেখুন, আসলে পরবর্তী বলে কি হবে, পরের ওভারে কি হবে কেউই বলতে পারে না। পরের ওভারে কী হতে পারতো এ বলে কি হবে। হ্যাঁ দুর্ভাগ্য লিটনের জন্য যে ও দুইবার স্লিপ করেছে, আমি জানিনা পিচের ভেতরে কিংবা পিচের সাইড দিয়ে দৌড়াচ্ছিল কিনা। যেখানে ঘাসের জায়গা ছিল ওখান থেকে দৌড়াচ্ছিল কিনা, প্রথম বার সেখানে স্লিপ করলে দ্বিতীয়বার অবশ্যই সতর্ক হয়ে পিচের মাঝখান দিয়ে দৌড়াতো। আমি জানিনা আসলে ও কোন জায়গা দিয়ে দৌড়াচ্ছিল। কারণ আমিতো পরের ব্যাটার ছিলাম। আমি মাঠে চলে যাওয়ার কারণে বুঝতে পারিনি ও আসলে কোন জায়গা দিয়ে দৌড়াচ্ছিল।’

ঠিক তাই, ভাগ্য বাংলাদেশের হয়ে কথা বলল না। তাইতো জয়টাও ধরা দিল না। আক্ষেপ সঙ্গী করেই শেষ ভারতের বিপক্ষে লড়াই!

Bootstrap Image Preview