Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০১ বুধবার, ডিসেম্বার ২০২১ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

যে কারণে গ্রেপ্তার করা হয় যুবরাজকে

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:০৬ PM আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:০৬ PM

bdmorning Image Preview
ছবি সংগৃহীত


গতকাল রবিবার হঠাৎই গ্রেপ্তার করা হয় যুবরাজ সিংকে। জামিনও পেয়ে যান ভারতীয় দলের এই প্রাক্তন ক্রিকেটার। ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে এমনটিই বলা হয়েছে।

কিন্তু কেন গ্রেপ্তার হয়েছিলেন যুবরাজ? যুজবেন্দ্র চহালকে কী বলেছিলেন তিনি? ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, চহালকে ‘ভাঙ্গি’ বলেছিলেন যুবরাজ। ঘটনাটি প্রায় দেড় বছর আগে। রোহিত শর্মার সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম ভিডিও চ্যাটে তিনি এই মন্তব্য করেছিলেন। তার আগে নেটমাধ্যমে একটি নাচের ভিডিও পোস্ট করেছিলেন চহাল। তা নিয়ে রোহিতকে যুবরাজ বলেছিলেন, ‘এই ভাঙ্গি যুজির (চহাল) আর কোনো কাজ নেই।’ এরপরই যুবরাজের বিরুদ্ধে জাতি বৈষম্যমূলক মন্তব্যের অভিযোগ ওঠে। 

আনন্দবাজার বলছে, ভারতের এসসিএসটি আইনের ৩(১)(ইউ) এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩এ এবং ১৫৩বি ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়। হরিয়ানার হিসার জেলার হান্সী শহরের রজত কালসান নামে এক ব্যক্তি এই অভিযোগ করেন। তার ভিত্তিতেই রবিবার গ্রেপ্তার হন যুবরাজ। পরে অন্তর্বর্তী জামিনও পেয়ে যান। পঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টে তিনি নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে যে এফআইআর করা হয়েছে, সেটিও তুলে নেওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। 

চহালকে ওই মন্তব্য করার পরেই যুবরাজ টুইটারে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছিলেন। লিখেছিলেন, ‘আমি কখনও কোনো জাতি, বর্ণ, ধর্ম অথবা লিঙ্গের বৈষম্যে বিশ্বাস করিনি। সারা জীবন মানুষের জন্য কাজ করেছি। আমি মানুষকে মর্যাদা দেওয়ায় বিশ্বাস করি। মানুষ একে অপরকে নিঃস্বার্থভাবে সম্মান করুক, এটাই চেয়ে এসেছি।’

Bootstrap Image Preview