Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৮ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বার ২০২১ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার খেলা পণ্ডের পিছনে দায় কার?

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫০ AM আপডেট: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫০ AM

bdmorning Image Preview


খেলা শুরুর পাঁচ মিনিটের মাথায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের হঠাৎ মনে পড়ল যে আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড় কোয়ারেন্টিনবিধি না মেনে খেলতে নেমেছেন! অথচ ওই চার খেলোয়াড় ব্রাজিলে ম্যাচটির তিন দিন আগেই অবস্থান করছিলেন। হোটেলে থাকা, খাওয়া থেকে শুরু করে নিয়মিত অনুশীলনও করছিলেন তারা। কিন্তু এই তিন দিন ব্রাজিলের জাতীয় স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধান এজেন্সির কর্মকর্তারা কোনো আপত্তি জানাননি যে আর্জেন্টিনার ওই চার খেলোয়াড় খেলতে পারবেন না।

ম্যাচটি যখন শুরু হলো, তার পাঁচ মিনিটের মাথায় হঠাৎ স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা মাঠে প্রবেশ করেন। কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভাঙার দায়ে আর্জেন্টিনার একাদশের ওই খেলোয়াড়দের খেলা নিয়ে আপত্তি জানান স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। তাদের অভিযোগের পর মাঠ ছেড়ে ড্রেসিং রুমে চলে যান আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়রা।

ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা মাঠে প্রবেশ করা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের ঘিরে ধরলে তারা তখন মেসি ও নেইমারের সঙ্গে কথা বলেন। একপর্যায়ে সমস্যার সমাধান না হওয়ায় রেফারি আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়দের ড্রেসিং রুমে পাঠিয়ে দেয়।

খেলা পণ্ড হওয়ায় কনমেবলের (লাতিন আমেরিকার ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা) নিয়ম ব্রাজিল নিজেদের পক্ষে পাচ্ছে না। কনমেবলের শৃঙ্খলাবিধির ৭৪নং ধারায় উল্লেখ আছে, ম্যাচ শুরু হয়ে গেলে খেলা থামিয়ে খেলোয়াড়দের ম্যাচ খেলায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়া যাবে না। খেলতে বাধা দেওয়া যাবে না। খেলোয়াড় সংক্রান্ত কোনো সমস্যা থাকলে সেটা মেটাতে হবে ম্যাচ শুরুর আগে বা পরে, ম্যাচ চলাকালীন সময়ে অবশ্যই নয়। যদি এমনটি হয়, তাহলে যে দলের কারণে ম্যাচ থেমে যাবে, সে দল ৩ পয়েন্ট হারাবে। প্রতিপক্ষ দল পাবে সেই ৩ পয়েন্ট।

কনমেবলের শৃঙ্খলাবিধির সেই ধারা অনুযায়ী, সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে আর্জেন্টিনা। যদিও এই পয়েন্টের ব্যাপারে কনমেবল এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো সিদ্ধান্ত দেয়নি।

তবে কনমেবল এক টুইটে জানিয়েছে, ফিফা আয়োজিত বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের এই ম্যাচ রেফারি স্থগিত করে দিয়েছে। ম্যাচ রেফারি ও ম্যাচ কমিশনার ফিফার শৃঙ্খলা কমিটির কাছে এ নিয়ে প্রতিবেদন দেবে। তার ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী করণীয় ঠিক করবে ফিফা।

ম্যাচ বাতিল হলে পূর্ণ পয়েন্ট পাবে আর্জেন্টিনা

নাটকীয় এক ঘটনার সাক্ষী হলো বিশ্ববাসী। করোনা মহামারি থেকে সুরক্ষায় এমনিতে খুব একটা সফল নয় ব্রাজিল। অদৃশ্য ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন দেশটির হাজারো মানুষ। কিন্তু ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ শুরুর পর ঘটানো হলো নতুন এক ঘটনা।

ইংল্যান্ড থেকে আসা আর্জেন্টিনার চার ফুটবলারকে ধরতে মাঠে হাজির ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। তাদের নিয়ম অনুযায়ী, ব্রিটেন থেকে আসলে অন্তত ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে ব্রাজিলে। এই নিয়ম মানা হয়নি এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, জিওভানি লো চেলসো ও ক্রিশ্চিয়ান রোমেরোর ক্ষেত্রে। 

তাই বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ শুরুর পাঁচ মিনিটের মাথায় মাঠে হাজির হন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। পরে স্থগিত হয়ে যায় ম্যাচ। শেষ পর্যন্ত যদি ম্যাচটি বাতিল হয়ে যায়, তাহলে পূর্ণ তিন পয়েন্ট পাবে আর্জেন্টিনা। ইতোমধ্যেই সেটি জানিয়ে দিয়েছে দক্ষিন আমেরিকার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল।

ম্যাচ স্থগিত হওয়ায় ক্ষোভ ঝেড়েছেন আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি ও অধিনায়ক লিওনেল মেসি। তিন দিন ধরে তারা ব্রাজিলে থাকলেও এই বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি বলে দাবি তাদের। মেসি বলেছেন, এই ঘটনা বিব্রতকর।

এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, জিওভানি লো চেলসো ও ক্রিশ্চিয়ান রোমেরোর কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম না মানায় ম্যাচে বিঘ্ন ঘটানোর কারণ জানেন না আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ক্লদিও তাপিয়াও।

তিনি বলেছেন, ‌তারা কোনো একটা কারণে ম্যাচে বিঘ্ন ঘটিয়েছে, কিন্তু ওই কারণটা আমরা জানি না। যখন তারা আমাদের অজ্ঞাত বিষয়ের কারণে ম্যাচে বাধা দেবে। তখন ম্যাচ অবশ্যই স্থগিত হওয়া উচিত।

Bootstrap Image Preview