Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ মঙ্গলবার, জুন ২০২১ | ৮ আষাঢ় ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

বজ্রপাতে নেত্রকোনায় নয়জন নিহত

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২১, ১০:৩৮ PM আপডেট: ১৮ মে ২০২১, ১০:৩৮ PM

bdmorning Image Preview


হাওরে কাজ করতে গিয়ে নেত্রকোনার চার উপজেলায় বজ্রপাতে নয়জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে কেন্দুয়া উপজেলায় দুজন কৃষক, মদনে দুজন কৃষক, খালিয়াজুরীতে তিনজন কৃষক ও একজন নৌ শ্রমিক এবং পূর্বধলায় এক শিশু রয়েছে। এ ছাড়া বজ্রপাতে খালিয়াজুরীতে পাঁচজন ও মদনে চারজন আহত হয়েছেন।

বজ্রপাতে মারা যাওয়া কৃষকরা হলেন- কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নের বৈরাটী গ্রামের মো. বায়েজিদ মিয়া (৪২) ও কান্দিউড়া ইউনিয়নের কুণ্ডলী গ্রামের মো. ফজলুর রহমান (৫৫), খালিয়াজুরী উপজেলার মেন্দিপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের খেলু ফকিরের ছেলে কৃষক অছেক মিয়া (৩২) একই গ্রামের আমির সরকারের ছেলে কৃষক বিপুল মিয়া (২৮), বাতুয়াইল গ্রামের মঞ্জুরুল হকের ছেলে মনির হোসেন, মদন উপজেলার পশ্চিম ফতেপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে হাফেজ মো. শরীফ ( ১৮) ও একই গ্রামের মৃত আব্দুল মন্নাফের ছেলে মাওলানা আতাবুর রহমান (১৯)। এরা সবাই হাওরে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে নিহত হন।

এছাড়া বজ্রপাতে পূর্বধলায় উপজেলার দলামূলগাঁও ইউনিয়নের টাকলি গ্রামের ইছাক মিয়ার ছেলে জুনাইদ (৮) ও বাজিতপুর উপজেলার সুতারপাড়া দীঘিরপাড় গ্রামের শিশু মিয়ার ছেলে নৌ শ্রমিক বাছন মিয়া (২২) নিহত হয়েছেন। 

এদিকে, নেত্রকোনার জেলা প্রশাসক কাজি মো. আবদুর রহমান বলেন, ‘বজ্রপাতে নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে নগদ ১৫ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া আহতদের পরিবারকে ৩ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে।

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহ নেওয়াজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাড়ির পাশে সবজি ক্ষেতে কাজ করছিলেন কুণ্ডুলী গ্রামের কৃষক ফজলু মিয়া। এ সময় হঠাৎ বজ্রপাতে তিনি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। অপরদিকে একই সময় বৈরাটি গ্রামের কৃষক বায়েজিদ মিয়া বাড়ির পাশের হাওরে কাজ করতে গিয়ে বজ্রপাতে মারা গেছেন। এসব ঘটনায় থানায় পৃথক দুটি অপমৃত্যুর মামলা হবে বলেও জানান ওসি।

Bootstrap Image Preview