Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৬ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ২০২১ | ১৩ মাঘ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

দুই বছরের সাধনায় খালি পায়ে আগুনের ওপর হাঁটলেন তাসকিন!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:১২ PM আপডেট: ০৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:১২ PM

bdmorning Image Preview


বিডিমর্নিং ডেস্কঃ খালি পায়ে জ্বলন্ত আগুনের ওপর দিয়ে হাঁটছেন ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ। তার হাঁটার সেই ভিডিও ভাইরাল হতেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। প্রশ্ন উঠেছে, ফেসবুকে এমন ভিডিও পোস্ট করায় তাসকিনের ভক্তদের উপর কতটা প্রভাব পড়তে পারে। সব কিছুর জবাব দিয়েছেন তারকা ক্রিকেটারের মাইন্ড কোচ।

সাবিত ইন্টারন্যাশনালের সঙ্গে নিজকে আত্মবিশ্বাসী করতে কাজ করে চলেছেন তাসকিন। প্রতিষ্ঠানের প্রধান কর্তা তথা তাসকিনের মাইন্ড কোচ সাবিত রায়হান সবাইকে এমন ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ কাজ থেকে বিরত থাকতে বলেছেন।

তার ভাষায়, ‘২০১৮ সালের বিপিএলের আগ থেকে নানা সেশন করে আসছেন তাসকিন। জ্বলন্ত কয়লার উপরে হেঁটে যাওয়া তার মধ্যে অন্যতম একটি। যা করতে প্রয়োজন সাধনার। আমাদের জায়গা থেকে এর কোনও ঝুঁকি নেই। তবে ট্রেনিং ছাড়া আগুনে হেঁটে গেলে যে কেউই ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। তাই সবাইকে বলবো এমন ঝুঁকি না নিতে।’

টনি রবিনস নামক মার্কিন মাইন্ড কোচ হলিউডসহ বিশ্ব তারকাদেরকে আগুনে হাঁটিয়ে আসছেন। যা ফায়ার ওয়াকিং হিসেবে পরিচিত। এই সেশনের মাধ্যমে একজন ব্যক্তি নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসী হতে পারেন। এর আদলে টাইগার পেসারকেও প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ‘তাসকিন কিন্তু পোস্টে লিখেই দিয়েছেন দেশের জন্যই তিনি নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে কাজ করছেন। আমরা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী এই কাজটি করেছিলাম। এটা করার সময় তাসকিনের পুরো পরিবার সঙ্গেই ছিলেন। বাবা-মা সামনেই বসা ছিলেন। এটা করতে তার দুই বছরের সাধনা করতে হয়েছে।’

দীর্ঘদিন ধরে মাইন্ড কোচ হিসেবে কাজ করছেন সাবিত। মাইন্ড ট্রেনিংয়ের আন্তর্জাতিক সনদ রয়েছে তার প্রতিষ্ঠানের। বাংলাদেশ ছাড়াও ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে তাদের মাধ্যমে কর্মশালা করা হয়েছে। সৌম্য সরকার ও এনামুল হক বিজয়রাও তাদের কাছে প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।

সাবিত বলে, ‘ইংল্যান্ডের ডেভিড জন লিংকন স্যারের সরাসরি ছাত্র আমি। ফায়ার ওয়াকিংয়ের উপর ভারতের মুম্বাই থেকে মিডাস টাচ নামক প্রতিষ্ঠান থেকে সনদ পেয়েছি। মাইন্ড ট্রেনিং শিখেছি আন্তর্জাতিক বিভিন্ন কর্মশালায় যোগ দিয়ে। আমাদের কাজের ধরন হচ্ছে যে কোনও ওষুধ ছাড়া মেডিটেশন দেয়া।’

তিনি জানিয়েছেন, এরইমধ্যে তাসকিনের সঙ্গে কথা বলে তার পোস্টটি এডিট করতে বলা হয়েছে। যেখানে শুরুতেই হ্যাশট্যাগের মাধ্যমে প্রশিক্ষক ছাড়া আগুনে হাঁটতে মানা করে দিয়েছেন ২৫ বছর বয়সী তাসকিন।

Bootstrap Image Preview