Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৫ বুধবার, আগষ্ট ২০২০ | ২১ শ্রাবণ ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

চার মাস ধরে বেতন পাচ্ছে না সাকিবের কাঁকড়া ফার্মের শ্রমিকরা

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০২০, ০৩:৩৪ PM আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০২০, ০৩:৩৪ PM

bdmorning Image Preview


সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী এলাকায় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের ‘সাকিব আল হাসান অ্যাগ্রো ফার্ম লিমিটেড’র শ্রমিকরা বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। চার মাস ধরে বেতন না পেয়ে বিক্ষোভে নামতে বাধ্য হয়েছেন বলে জানান শ্রমিকরা।

একাধিকবার সময় নিয়েও বেতন না দেওয়ায় সোমবার (২০ এপ্রিল) সকালে আন্দোলনে শুরু করেন ফার্মের দুই শতাধিক শ্রমিক। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে আন্দোলন করায় র‌্যাবের একটি টহল টিম আন্দোলনরত শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দেয়।

সাকিব আল হাসান অ্যাগ্রো ফার্ম লিমিটেডের শ্রমিক মহিদুল ইসলাম বলেন, আমাদের চার মাস ধরে কোনো বেতন দেয়া হয় না। করোনার প্রাদুর্ভাবে কঠিন অবস্থায় দিন কাটাচ্ছি। বাড়িতে খাবার নেই।

শ্রমিক মনোয়ারা বলেন, অসহায় হয়েই সাকিবের কাঁকড়া ফার্মে কাজ করি। কিন্তু গত চার মাস বেতন বন্ধ। করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে খাবার নেই। না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে ছেলে-মেয়েরা।

রহিমা বেগম নামে এক শ্রমিক বলেন, বাড়িতে সন্তান ও পরিবার ফেলে প্রজেক্টে কাজ করেছি অভাবের তাড়নায়। ঠিকমতো বেতন না পাওয়ায় খুবই কষ্টে আছি।

jagonews24

বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম জানান, কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেছি। ফার্ম কর্তৃপক্ষ বিক্ষোভরত শ্রমিকদের ৩০ এপ্রিলের মধ্যে বেতন পরিশোধ করবেন বলে জানিয়েছে।

এ ব্যাপারে বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মন্ডল বলেন, স্থানীয়রা আমাকে জানিয়েছেন- বেতন না দেয়ায় ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের কাঁকড়া খামারের সামনে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করছেন। তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে ইউপি সদস্যকে পাঠাই ও কাঁকড়া খামারের ম্যানেজারের সঙ্গে ফোনে কথা বলি।

তিনি আরও বলেন, আমি ম্যানেজারকে জানিয়েছি সাকিব দেশের সম্পদ। তার শ্রমিকরা যদি এই করোনা পরিস্থিতিতে রাস্তায় থাকে তবে তার সম্মান ক্ষুণ্ন হবে। দ্রুত যে কোনোভাবে তাদের বুঝিয়ে বা বেতন দেয়ার ব্যবস্থা করে রাস্তা থেকে সরানোর ব্যবস্থা করেন। ম্যানেজার জানিয়েছেন, তাদের স্বল্প সময়ের মধ্যেই বেতন পরিশোধের ব্যবস্থা করা হবে।

এ বিষয়ে কথা বলতে সাকিব আল হাসানের কাঁকড়া ফার্ম প্রজেক্টের ম্যানেজার সগীর হোসেন পাভেলের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Bootstrap Image Preview