Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৪ সোমবার, অক্টোবার ২০১৯ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ | ঢাকা, ২৫ °সে

এবার মহাকাশে সোনায় মোড়ানো গ্রহাণুর সন্ধান

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:৫৫ PM আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:৫৫ PM

bdmorning Image Preview
প্রতীকী ছবি


আজব এই পৃথিবীতে কোথায় যে কী গোপন আছে তা বলা মুশকিল। তাইতো অপার এই বিশ্ব নিয়ে রহস্যের কোনও অন্ত নেই। তবে তারচেয়েও বেশি রহস্য মহাকাশ নিয়ে। এবার সেই মহাকাশে সোনায় মোড়ানো গ্রহাণুর সন্ধান পেয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা।  

নাসার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সোনা ও বেশকিছু অতি মূল্যবান ধাতু দিয়ে মোড়ানো ওই গ্রহাণুটি। এর বৈজ্ঞানিক নাম দেয়া হয়েছে ‘১৬ সাইকি’। এখন গ্রহাণুটির কাছে পৌঁছুনোর পরিকল্পনা করছে সংস্থাটি। 

আশ্চর্যের বিষয়, গ্রহাণুটির মধ্যে যা খনিজ পদার্থ ও ধাতু রয়েছে, তার মূল্য বিশ্বের বাজারে ৭০০ কুইন্ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। অর্থাৎ সাতের পেছনে ২০টা শূন্য বসালে যা হয়। অর্থাৎ এই পৃথিবীর প্রতিটি মানুষ প্রায় ৯৩ বিলিয়ন ডলার পাবেন। অর্থাৎ তখন আপনিও কোটিপতি হয়ে যাবেন, টাকার আর কোনও মূল্যই থাকবে না তখন।

তবে ওই গ্রহাণু থেকে উত্তোলিত সোনা ও অতি মূল্যবান ধাতু পৃথিবীর প্রত্যেকটা মানুষের মধ্যে ভাগ বাটোয়ারা করলে তা আর মূল্যবান থাকবে না। অর্থনীতির ছাত্রছাত্রীরা অবশ্যই জানবেন, দাম ও আপেক্ষিক ঘাটতির একটি সম্পর্ক রয়েছে। বাজারে সোনার সরবরাহ বেড়ে গেলে তার দাম পড়ে যাবে। তখন সোনা আর আগের মত মূল্যবান থাকবে না।

অতএব ‘১৬ সাইকি’ থেকে সোনা ও অতি মূল্যবান ধাতু উত্তোলন করে পৃথিবীতে নিয়ে আসা হলে সোনার দাম কমবে, তখন আর কেউ পানির দরেও সোনা কিনতে চাইবে না। তাতে লাভের চেয়ে বরং ক্ষতিটাই বেশি হতে পারে।
 

Bootstrap Image Preview