Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১১ মঙ্গলবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

অবশেষে মাশরাফির নির্বাচন করা নিয়ে মুখ খুললেন নাজমুল হাসান পাপন

মোঃ মেজবা উদ্দীন মিলন
সাব এডিটর
প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৩:১৮ PM আপডেট: ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৪:২২ PM

bdmorning Image Preview


আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের ঠিক আগ মুহুর্তে ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। আর তা নিয়েই শুরু হয়েছে যত বিপত্তি। কারণ একাদশ নির্বাচন করছেন টাইগার দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ইতোমধ্যে মাশরাফি নির্বাচন করা নিয়ে ক্রিকেট পাড়া সহ রাজনৈতিক পাড়ায় আলোচনা - সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করেছে। কিন্তু এই বিষয় ক্রিকেট মহলের কেউ এতো দিন কোন কথা বলেননি। মাশরাফি নিজেও কোন কিছু জানাননি। অবশেষে আজ বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন মাশরাফি ও সাকিবের নির্বাচন করা নিয়ে কথা বললেন।

মিরপুরে আজ  বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচ ছিলো। এই ম্যাচে সফরকারীদের ২১৮ রানে হারিয়ে সিরিজ ড্র করেছে টাইগাররা। ম্যাচের পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান এসেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সেখানে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন বিসিবি সভাপতি।

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনের কারণে মাশরাফির ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলাটা কতটা নিশ্চিত জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন,এটা তো কঠিন প্রশ্ন কিন্তু ওয়ার্ল্ড কাপে পাওয়া যাবে আমি যতদূর জানি। আসলে হয়েছি কি, ওর(মাশরাফির) ইস্যুটার টাইমিংটা দেখেন। ওর নির্বাচনের নমিনেশনের সাব মিটের একটা ডেট আছে । কবে তুলবে, কবে ফিল আপ করবে ? ওখানে কোন প্রোগ্রাম করবে কি না সেটাও আমি জানি না।কিন্তু আজকে মাশরাফির সাথে আমার দেখা হবে । মনে হয় হবে। দেখা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তার পর আমি ডিটেলস জানতে পারবো। যদি সুযোগ থাকে তাহলে সে খলবে। যদি এক দিনের জন্যই ইনস্পিয়ার করার সুযোগ থাকে তাহলে ও খেলবে।খেলাটা মাশরাফির কাছে সুডবি প্রায়টি।  

মাশরাফির নির্বাচনের কারণে খেলা আর রাজনীতির মাঝে যে কোন দ্বন্দ্ব সৃস্টি করবে না সেটা জানিয়ে দিলেন বোর্ড সভাপতি, এটা আমি ঠিক মনে করি না। যেমন ধরেন সাকিবও নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তখন এই সব কথা চিন্তা করে সাকিব আরো ৪-৫ বছর খেলবে বলে আমরা মনে করি । তাই সাকিবের ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন ঠিক আছে সাকিব এখন খেলুক।মাশরাফির ব্যাপারটা ভিন্ন। ও কত দিন খেলবে ঠিক নিশ্চিত না। ওর যে শারীরিক অবস্থা , এখনো যে খেলছে এটাই তো অনেক। সে খেলোয়াড় হিসেবে খেলে না, আমাদের দলে অধিনায়ক হিসেবে খেলে। ওর অধিনায়কত্ব আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। ওর মতো অধিনায়ক খুঁজে পাচ্ছি না, পাব বলেও মনে হয় না। সেদিক দিয়ে চিন্তা করলে বড়জোর বিশ্বকাপের পর হয়তো অবসরে যাবে। সেটি যদি হয় মাত্র কয়েক মাসের ব্যাপার। এটা হলে এর চেয়ে ভালো প্রস্থান আর কিছু হতে পারে না। কয়েক মাস পর অবসর নিলে সে এই সাড়ে চার বছর আর করবেটা কী? আরেকটি ক্ষেত্রে সে থাকল, যেখান সে ক্রীড়াক্ষেত্রে জোরালো অবস্থান রাখতে পারবে বলেই আমার বিশ্বাস।’

 

Bootstrap Image Preview