Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১২ বুধবার, ডিসেম্বার ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ঢাকা, ২৫ °সে

নিজের ইচ্ছায় নয়, যদি প্রধানমন্ত্রী চান তবেই নির্বাচন করবেন মাশরাফি

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০১৮, ০৫:২৯ PM আপডেট: ১০ নভেম্বর ২০১৮, ০৫:২৯ PM

bdmorning Image Preview
ফাইল ছবি


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাইলে এবার নড়াইল-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন মাশরাফি। তবে নিজের ইচ্ছায় নয়, যদি প্রধানমন্ত্রী চান তবেই নির্বাচন করবেন মাশরাফি।

আজ শনিবার সাংবাদিকদের কাছে কথাগুলো বলছিলেন মাশরাফির বাবা গোলাম মর্তুজা স্বপন।

তিনি জানান, আগামীকাল রবিবার নড়াইল-২ আসন থেকে মনোনয়ন ফরম কিনতে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে যাবেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

এদিকে, আগামী নির্বাচনে মাশরাফি প্রার্থী হওয়ার খবরে জেলাজুড়ে বইছে আনন্দের বন্যা। জনপ্রিয় এই ক্রিকেটারকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে এমপি বানাতে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন জেলাবাসী।

স্থানীয় ভোটার স্বপ্না বেগম বলেন, আমি মাশরাফির ভক্ত। মাশরাফি নির্বাচন করবেন তা আগে ভাবিনি। যখন জানতে পেরেছি এবার তিনি প্রার্থী হচ্ছেন, তখনই সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমার জীবনের প্রথম ভোট আমি মাশরাফিকেই দেব।

স্থানীয় ভোটার মাসুদুর রহমান বলেন, যে-যাই বলুক ভাই, আমরা মাশরাফিকেই চাই। মাশরাফি ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। আমরা মাশরাফিকেই এমপি হিসেবে দেখতে চাই।

মনিরুল হোসাইন বলেন, নড়াইলবাসীর জন্য কৌশিক (মাশরাফির ডাক নাম) আশীর্বাদস্বরূপ। আমাদের আগামী প্রজন্মের সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য কৌশিকের বিকল্প নেই।

এ ব্যাপারে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. তারিকুল ইসলাম অনিক বলেন, মাশরাফির পক্ষ থেকে সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আগামীকাল সকালে গণভবন থেকে মনোনয়ন সংগ্রহ করবেন। এ খবরে আমরা সবাই আনন্দিত। নড়াইল থেকে মাশরাফির কয়েকজন কাছের মানুষ ঢাকায় যাচ্ছেন। তারাও মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের সময় উপস্থিত থাকবেন।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু বলেন, দেশরত্ন শেখ হাসিনা আমাদের চেয়ে ভালো বোঝেন। তিনি যাকে নৌকা মার্কার প্রার্থী দেবেন আমরা তার সঙ্গেই নির্বাচন করব। তাকেই জয়ী করব।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস বোস বলেন, আজ আমি ঢাকা যাচ্ছি। অনেকেই মনোনয়ন কিনছেন, শুনেছি মাশরাফি মনোনয়ন কিনবেন, আমিও কিনব। প্রধানমন্ত্রী যার হাতে নৌকা প্রতীক তুলে দেবেন আমরা তার জন্য কাজ করে নৌকার বিজয় ছিনিয়ে আনব।

এদিকে মাশরাফি ছাড়াও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করবেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার ও বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, তাঁরা মনোনয়নপত্র সংগ্রহের জন্য আগামীকাল রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ধানমন্ডি কার্যালয়ে আসবেন।

এ ব্যাপারে সাকিব জানান, তিনি মাগুরা-১ আসনের জন্য তাঁর মনোনয়নপত্র জমা দেবেন।

কিছুদিন আগে থেকেই মাশরাফি ও সাকিবের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা বিষয়টি সংবাদমাধ্যমের সামনে এনেছিলেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, মাশরাফি আগামীকাল আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপ্রত্র সংগ্রহ করবেন বলে আমিও শুনেছি।

এদিকে সাকিব আল হাসানের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের ব্যপারে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া জানিয়েছেন, সাকিব আল হাসান রবিবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে মনোনয়ন ফরম কিনতে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে আসবেন বলে জানিয়েছেন। সাকিব আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ফোন করে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করার বিষয়টি জানিয়েছেন।

তাদের দুজনেরই যেহেতু ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের কথা রয়েছে তাই নির্বাচনে অংশ নিলে কোনো সমস্যা হবে কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে চলতি বছরের মে মাসে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছিলেন, খেললে সমস্যা কী? আমিও নির্বাচন করি, আবার ক্রিকেটের সঙ্গে আছি।

প্রসঙ্গত, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর)। তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৩ ডিসেম্বর (রোববার)। এ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৯ নভেম্বর (সোমবার)। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন ২২ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার)। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার)।

তফসিল ঘোষণার পর গতকাল (শুক্রবার) থেকে শুরু হয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পত্রের ফরম বিক্রি। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির কার্যালয়ে সকাল ১০টা থেকে এই ফরম বিক্রি শুরু হয়।

মনোনয়নপত্রের ফরম কেনার জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির কার্যালয়ের সামনে সকাল থেকেই হাজার হাজার মানুষ ভিড় করেছেন। গতবার মনোনয়ন ফরমের দাম ২৫ হাজার টাকা থাকলেও এবার তা ৩০ হাজার টাকা করা হয়েছে।

এবারের সংসদ নির্বাচনে মোট ভোটার ১০ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮০, যা গত ৩১ জানুয়ারি হালনাগাদ করা ভোটারের থেকে ৪৮ হাজার ৯৯ জন বেশি। ফেব্রুয়ারি থেকে ১০ অক্টোবর- এই সময়ের মধ্যে নতুন ভোটার হয়েছেন প্রায় ৫০ হাজার।

Bootstrap Image Preview