Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২০২৪ | ১২ বৈশাখ ১৪৩১ | ঢাকা, ২৫ °সে

শাকিব-মিমকে নিয়েও ভয়ে ছিলো অপু বিশ্বাস!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২২, ১২:৪০ PM আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০২২, ১২:৪০ PM

bdmorning Image Preview


ঢালিউডে পরপর দুই সিনেমায় জুটি হয়ে আলোচনায় শরিফুল রাজ ও বিদ্যা সিনহা মিম। ‘দামাল’ ও ‘পরাণ’ সিনেমার সাফল্যের পর এই দুই তারকা ক্যারিয়ারে ব্যস্ত সময় পার করছেন। কিন্তু এই জুটিকে আর একসঙ্গে দেখা যাবে না। এর কারণ রাজের স্ত্রী পরীমণি। এমনি ঘটনা মিমের ক্ষেত্রে নতুন নয়। ২০০৮ সালে শাকিব খান ও মিম জুটির প্রথম ছবি ‘আমার প্রাণের প্রিয়া’ মুক্তি পায়। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ছবির ‘কি জাদু করেছ বলনা’ গানটি ছিল মানুষের মুখে মুখে। নতুন জুটি পাবার আশায় ছিলেন দর্শকরা। কিন্তু কোনো এক অজ্ঞাত কারণে শাকিব-মিমের আর একসঙ্গে কাজ করা হয়নি। 

মিমকে ২০১৭ সাল শাকিব-মিমের মধ্যে কি কোনো দ্বন্দ্ব ছিল কিনা এমন প্রশ্ন করেন শাহরিয়ার নাজিম জয়? শাহরিয়ার নাজিম জয়ের উপস্থাপনায় এটিএন বাংলায় প্রচারিত ‘সেন্স অব হিউমার’ অনুষ্ঠানে কিছু বিষয়ের রহস্য উন্মোচিত হয়েছে। ফেসবুকে জয়ের প্রশ্ন ও মিমের জবাবের ওই ভিডিওটি তুমুল শেয়ারও হয়েছিলো।

অনুষ্ঠানে জয় প্রশ্ন করছিলেন, আমার প্রানের প্রিয়া’ সিনেমাটি দর্শকপ্রিয়তা পাবার পর শাকিবের সঙ্গে আর সিনেমা করা হলো না কেনো? আমরা জানি অপু বিশ্বাসের সঙ্গে তোমার দ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছিল।

জবাবে মিম বলেন, শাকিব ভাইয়ের সঙ্গে কয়েকটা সিনেমাতে কাজ করার কথা হয়। একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধও হয়েছিলাম। শাকিবের সঙ্গে ‘ভালো বাসলে ঘর বাঁধা যায় না’ সিনেমাটি করার কথা ছিল। ডিরেক্টর ছিলেন জাকির হোসেন রাজু। পরে শাকিব ভাই অপুকে নিতে বলেছেন। এ সিনেমায় আমার আর অভিনয় করা হয়নি! শাকিব খান কেন অপুকে দিকে নিতে বলেছিলেন এখন সবার কাছে জানা ব্যাপারটি।

শাকিবের সঙ্গে দুটো চুক্তি বদ্ধ হয়েছেন মিম। আগে অপুর কারণে শাকিবের সঙ্গে জুটি তৈরি হয়নি। এত বছর পরে ফের শাকিবের সঙ্গে জুটি হয়েছ। সেখানেও অপু বিশ্বাসের হাত আছে, কিন্তু ডিফরেন্ট রোলে। আমরা এমনটা জানি। অপু বিশ্বাস তোমাকে ফোনও করেছিল।

জয়ের এমন কথার পর মিম সরল মনে বলেন, শাকিব খানের সঙ্গে ছবি সাইন করার পরেই অপুদি ফোন করেছিল। আমি একটু অবাক হয়েছিলাম। কারণ কয়েদিন আগে আমাদের একটা প্রোগ্রাম করার কথা ছিল। প্রোগ্রামটি হয়নি। আমি আসলে কি বলব বুঝতে পারছিলাম না। অপুদি আমাকে নর্মালি কংগ্রেচুলেশন জানায়। আমাকে ভালোমতো ছবি করতে বলল। আমাকে একটা কথা বলেছিলেন উনি। বলেছিলেন, আমি তোমার সঙ্গে কথা বলছি এটা যেনো বাইরে কেউ না জানে। আমি বাইরে বলব তোমার সঙ্গে আমার খুব খারাপ সম্পর্ক। কিন্তু আমাদের ভালো সম্পর্কটা থাকবে। আমি তার কথায় শুধু সাপোর্ট দিয়েছিলাম।

এদিকে গত ১০ নভেম্বর এক স্ট্যাটাসে স্বামী ও অভিনেতা শরিফুল রাজের সঙ্গে অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিমের বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের কথা জানান। তার স্ট্যাটাসটি মুহূর্তেই সমালোচনার জন্ম দেয়। পরীমণি ফেসবুকে লেখেন, ‘রায়হান রাফি সিনেমার সঙ্গে সঙ্গে দালালিটাও ভালো করেন দেখি! বিদ্যা সিনহা মিম নিজের জামাইকে নিয়ে সন্তুষ্ট থাকা উচিত ছিল। শরিফুল রাজ এটা এতদূর গড়াতে দেওয়া উচিত হয়নি।’ পরীর এই স্ট্যাটাসের কয়েক ঘণ্টা পর ফেসবুকে কারও নাম উল্লেখ না করে সতর্ক করেন মিম। ‘পরাণ’-এর নায়িকার স্ট্যাটাসের পর বিষয়টি আরও উত্তাপ ছড়িয়ে দেয়। 

প্রায় এক বছর আগে রায়হান জুয়েলের নতুন সিনেমা ‘পথে হলো দেখা’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন বিদ্যা সিনহা মিম। তার বিপরীতে রাজকে নেওয়ার ব্যাপারে পরিচালক আগ্রহ প্রকাশ করলেও সিনেমার স্ক্রিপ্ট পছন্দ হয়নি রাজের। পরবর্তী সময়ে নির্মাতা স্ক্রিপ্ট ঠিক করে নেন। এবার সিনেমাটি করবেন না বলে পরিচালককে জানিয়েছেন মিম। অভিনেত্রী জানান, ‘রাজের সঙ্গে “দামাল” ছবির প্রচার থেকে শুরু করে রাজের স্ত্রী পরীমণি ফেসবুকে আমাকে নিয়ে স্ট্যাটাস দিয়ে যেসব ঘটনা ঘটিয়েছেন, তাতে রাজের সঙ্গে আর কাজ না করাই উত্তম।’ তিনি আরও বলেন, ‘রাজের সঙ্গে পরপর দুটি ছবি ভালো গেছে আমার। রাজ খুব ভালো সহশিল্পী। জুয়েল ভাইয়ের পরিচালনায় এই ছবিতেও রাজের বিপরীতে কাজ করার কথা ছিল। কিন্তু এখন আর রাজের বিপরীতে কাজ করব না। এ কথা বলে দিয়েছি পরিচালককে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রাজ অনেক ভালো সহশিল্পী। গল্পের প্রয়োজনে ছবিতে রোমান্টিক দৃশ্য থাকতে পারে। রাজের সঙ্গে এসব দৃশ্য করতে গেলে তাদের পরিবারে আবার ঝামেলা তৈরি হবে। সামাজিক ও পারিবারিকভাবে আবারও হেয় হতে পারি আমি। আমি চাই রাজ ও পরীমণি ভালো থাকুক।’ ভবিষ্যতে রাজের বিপরীতে কোনো সিনেমা করবেন না বলেও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন মিম।

Bootstrap Image Preview