Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শুক্রবার, অক্টোবার ২০২১ | ৭ কার্তিক ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

পাত্রী খুঁজচ্ছে নোবেল কিন্তু বিয়ে করবে কে?

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৫৭ PM আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৫৭ PM

bdmorning Image Preview
ছবি সংগৃহীত


সম্প্রতি গায়ক মঈনুল আহসান নোবেলকে তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছেন তার স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিল। তালাকের নোটিশ হাতে পাওয়ার বিষয়টি স্বীকারও করেন নোবেল। এ গায়ক জানান, বিষয়টিতে বিচলিত নন তিনি, বাবা-মায়ের পছন্দে দ্বিতীয় বিয়ে করতে চান। তাই এবার বিয়ে করার জন্য পাত্রী চেয়ে সামাজিক মাধ্যমে স্ট্যাটাস দিলেন নোবেল।

নিজের ফেসবুক পেজ ‘নোবেল ম্যান’ থেকে রোববার (৯ অক্টোবর) স্ট্যাটাসে নোবেল লেখেন, পাত্রী চাই। নোবেলের সেই পোস্ট দ্রুত সময়ের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়। যার কমেন্টস বক্সে বেশিরভাগ মতামতই নোবেলকে নিয়ে কটাক্ষ করা। এর আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচয়ের সূত্রে পরিচয় হয় মেহরুবা সালসাবিলের সঙ্গে।

২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর সালসাবিলকে বিয়ে করেছিলেন নোবেল। গত ১১ সেপ্টেম্বর নোবেলের ঠিকানায় তালাকের নোটিশ পাঠায় সালসাবিল। নোবেল তালাকের নোটিশ গ্রহণ করেছেন।

যে কারণে নোবেলকে ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিলেন সালসাবিল

 

‘নোবেলের সঙ্গে কোনো সুস্থ মানুষ থাকতে পারবে না’ উল্লেখ করে মেহরুবা সালসাবিল বলেন, নোবেল মানসিকভাবে চরম অসুস্থ এবং মাদকাসক্ত। একাধিক নারীর সঙ্গে তার সম্পর্ক। সে আমাকে নানাভাবে নির্যাতন করতো। এসবের প্রমাণ আমার কাছে আছে। ধৈর্য্য সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে গেছে। সে কখনই শুধরাবে না। তাই নোবেলকে ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিলের এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে নোবেলের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে সাড়া পাওয়া যায়নি। তবে মঙ্গলবার দুপুরে নোবেল তার ফ্যান পেজে ‘ডিভোর্স’ লিখে একটি পোস্ট দিয়েছেন।

২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর মেহরুবা সালসাবিলকে বিয়ে করেন জি বাংলার সারেগামাপা’র মঞ্চ থেকে উঠে আসা শিল্পী মঈনুল আহসান নোবেল। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে নিজের গান প্রকাশ হওয়ার আগে বিতর্কিত মন্তব্য করে তুমুল সমালোচনায় পড়েন নোবেল।

পরে দেশের কিংবদন্তী শিল্পীদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন পাশাপাশি ব্যক্তিজীবনে বিভিন্ন উচ্ছশৃংক্ষল আচারণের কারণে নোবেল ছিলেন সমালোচিত।

Bootstrap Image Preview