Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২২ শুক্রবার, অক্টোবার ২০২১ | ৭ কার্তিক ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

আদালতে আজ কি হয়েছিলো পরীমনির?

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০২১, ০৮:১৩ PM আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০২১, ০৮:১৩ PM

bdmorning Image Preview
ছবি সংগৃহীত


বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় জামিন নিতে আদালতে হাজির হয়েছিলেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা পরীমনি ও তার দুই সহযোগী। জামিনও পেয়েছেন তিনি। এর আগে আদালতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন এই নায়িকা।

রোববার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালত তাদের জামিনের আদেশ দেন। 

সূত্র জানায়,  দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে আদালতে আসেন পরীমনি।  ছয়তলা সিঁড়ি বেয়ে উঠতে গিয়ে হাঁপিয়ে উঠেন। শুনানির শেষ পর্যায়ে ক্লান্তিতে আদালত কক্ষে এজলাসের ভেতরেই শুয়ে পড়েন তিনি। পরে কর্মরত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ভিড় সরিয়ে পরীমনিকে তার গাড়িতে তুলে দেন।

তবে হাজিরা দিতে এসে আদালত প্রাঙ্গণে অসুস্থ হয়ে পড়েন এ নায়িকা। শুনানি শেষে তাকে অসুস্থ অবস্থায় তার ব্যবহৃত গাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

গত ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ শুনানি শেষে পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেন। পরদিন গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগার থেকে মুক্ত হন এ তিনি।

গত ৪ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক কাজী মোস্তফা কামাল আদালতে পরীমনিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। অভিযুক্ত অন্য দুজন হলেন আশরাফুল ইসলাম দিপু ও কবির হোসেন। প্রতিবেদন দাখিলের পর আজ তিনি আইনজীবীর মাধ্যমে স্থায়ী জামিনের আবেদন করেন।

সাড়ে ৩ ঘণ্টা পর আদালতে উপস্থিত হন পরীমনি

 

রোববার সকাল ১০টায় উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও আসামি অভিনেত্রী পরীমনি দুপুর একটা পর্যন্ত আদালতে উপস্থিত হননি।

ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদারের আদালতে ওই মামলার শুনানি হয়।

রোববার দুপুর দেড়টার পর পরীমনি আদালতে হাজির হন।

এ বিষয়টি আদালতকে জানিয়ে পরীমনির জামিনের বিরোধিতা করেন ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের প্রধান সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) আবদুল্লাহ আবু।

আদালতকে তিনি বলেন, আগে থেকে এই মামলায় শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য ছিল। সাধারণত সকাল ১০টায় প্রত্যেক আসামির আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। কিন্তু আসামি পরীমনির দুপুর একটা পর্যন্ত আদালতে হাজির হননি।  

পিপি আবদুল্লাহ আবু বলেন, আইন সবার জন্য সমান। প্রত্যেককে আইন মেনে চলতে হবে। আদালতে সঠিক সময়ে হাজির হতে হবে। আদালতের প্রতি সম্মান দেখাতে হবে। পরীমনির কাছ থেকে বিদেশি মদসহ ভয়ংকর রকমের মাদক এলএসডি-আইস পাওয়া গেছে। পরীমনির জামিনের বিরোধিতা করছেন তিনি।

পিপির বক্তব্যের পর পরীমনির আইনজীবী নীলাঞ্জনা আদালতে বলেন, ‘স্যার, এ রকম ভুল আর হবে না।’

শুনানিতে পরীমনির আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া পর্যন্ত এই মামলায় পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেছিলেন আদালত।  তিনি জামিনের কোনো অপব্যবহার করেননি।  তাই আবার তার জামিন মঞ্জুর করা হোক। 

আদালত উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে মামলাটি বিচারিক আদালতে বদলির আদেশ দেন।

প্রসঙ্গত, গত ৪ আগস্ট অভিযান চালিয়ে পরীমনিকে তার বনানীর বাসা থেকে আটক করে র্যা পিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র্যা ব)। সময় তার বাসা থেকে বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয় বলে জানানো হয়। পরদিন ৫ আগস্ট বিকেলে পরীমনি, চলচ্চিত্র প্রযোজক রাজ ও তাদের দুই সহযোগীকে কালো একটি মাইক্রোবাসে বনানী থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এ

পরে র‌্যাব-১ বাদী হয়ে মাদক আইনে পরীমনির বিরুদ্ধে মামলা করে।  ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালত ৫০ হাজার টাকার মুচলেকায় পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেন।

Bootstrap Image Preview