Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৮ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বার ২০২১ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৮ | ঢাকা, ২৫ °সে

কলেজে গিয়ে কী করলেন দীঘি?

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৫ AM আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৫ AM

bdmorning Image Preview


করোনার কারণে প্রায় দুই বছর বন্ধ ছিল দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। নির্দিষ্ট করে বললে ৫৪৩ দিন। এই দীর্ঘ সময় পর অবশেষে রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) খুলেছে দেশের স্কুল ও কলেজগুলো। তাই এ দিনে আনন্দ-উল্লাস নিয়েই নিজ নিজ শিক্ষালয়ে গিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

ঢাকাই সিনেমার নায়িকা দীঘিও একজন ছাত্রী। তিনি পড়েন এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষে। বন্ধ থাকার কারণে এত দিন ছিলেন কলেজ থেকে দূরে। কলেজ খোলায় তিনিও ছুটে গেছেন প্রিয় শিক্ষক ও সহপাঠীদের কাছে।

গণমাধ্যমের কাছে দীঘি বলেন, ‘প্রথম দিনটা দারুণ কেটেছে। বছরের প্রথম দিন স্কুলে যাওয়ার মতো অনুভূতি হয়েছে। কতদিন পর সবাইকে সরাসরি দেখলাম!’

যেহেতু দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলেছে, তাই এদিন তেমন পড়াশোনা হয়নি। বরং গল্প-আড্ডায় কেটেছে দিনটি। দীঘির ক্ষেত্রেও এমন হয়েছে। তার ভাষ্য, ‘কলেজে আজ প্রথমদিন বলে তেমন লেখাপড়া হয়নি। তবে সবাই মিলে অনেক আড্ডা দিয়েছি। এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করার মতো না।’

জানা গেছে, রাজধানীর স্টামফোর্ড কলেজে পড়েন দীঘি। সিনেমার কাজের জন্য নিয়মিত ক্লাস করতে পারেন না তিনি। আবার করোনার কারণে এত দিন সাক্ষাৎ না হওয়ায় বন্ধুদেরও অনুরোধ ছিল, যেন অবশ্যই কলেজে যান। বন্ধুদের সেই চাওয়ার পাশাপাশি দীঘি নিজেও ব্যাকুল হয়ে ছিলেন কলেজে যাওয়ার জন্য।

প্রসঙ্গত, অভিনেতা সুব্রত বড়ুয়া ও অভিনেত্রী দোয়েলের মেয়ে দীঘি। ছোট বেলাতেই অভিনয়ে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। অর্জন করেছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। তবে এখন তিনি প্রাপ্তবয়স্ক নায়িকা। ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমার মাধ্যমে নায়িকা হিসেবে অভিষেক হয় তার। সর্বশেষ তাকে দেখা গেছে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াভাই’ নামের একটি সিনেমায়।

Bootstrap Image Preview