Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ৩০ বুধবার, সেপ্টেম্বার ২০২০ | ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ | ঢাকা, ২৫ °সে

'আমাকে শারীরিক নির্যাতন করত, তাই ওকে ডিভোর্স দিয়েছি'

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৫৯ PM আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:০৩ PM

bdmorning Image Preview


‘রানি কেন ডাকাত’খ্যাত নায়িকা মুনমুনের দীর্ঘ ১০ বছরের সংসার ভেঙে গেল। স্বামী মীর মোশাররফ হোসেন রোবেনের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটিয়েছেন তিনি। স্বামীকে ডিভোর্সের বিষয়টি নিজেই গণমাধ্যমে নিশ্চিত করে মুনমুন জানিয়েছেন, রোবেনের কাছ থেকে নিয়মিত নির্যাতন ও স্বার্থপরতার শিকার হয়ে অবশেষে তালাক নেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। গত ঈদুল আজহার পর দিনই তাদের তালাক কার্যকর হয়েছে।

যাত্রা ও স্টেজ শোতে কাজ করতে মীর মোশাররফ হোসেন রোবেনের সঙ্গে পরিচয় হয় মুনমুনের। পরিচয় থেকে প্রেম।

২০১০ সালে রোবেনকে বিয়ে করেন মুনমুন। এই সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে তাদের।

রোবেনকে কেন ডিভোর্স দিয়েছেন প্রশ্নে মুনমুন বলেন, ‘কেউ চায় না সংসার ভেঙে যাক। কিন্তু পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। অনেক চেষ্টা করেছি। দীর্ঘ ১০ বছর রোবেনকে বুঝিয়েছি। কিন্তু সে বেপরোয়াই থেকেছে। বাধ্য হয়ে তাকে ডিভোর্স দিতে হলো। ’

মুনমুন আরও বলেন, রোবেনের জন্য আমি অনেক স্যাক্রিফাইস করেছি। তার সুবিধার জন্য আমার নিজের একটি ফ্ল্যাট ছেড়ে দিয়েছিলাম স্টুডিও করবে বলে। টাকা-পয়সা দিতাম। কিন্তু সে কিছুই করতে পারল না। উল্টো হতাশায় ক্ষোভ প্রকাশ করে আমাকে নির্যাতন করত। শারীরিক নির্যাতনের মাত্রাও দিন দিন বেড়ে যাচ্ছিল। এটা আমি মেনে নিতে পারিনি। তাই ওকে ডিভোর্স দিয়েছি।

মুনমুনের দ্বিতীয় স্বামী রোবেন। ২০০৩ সালে সিলেটের একজন ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেছিলেন মুনমুন। সে সময় স্বামীর সঙ্গে যুক্তরাজ্যে চলে যান তিনি। ২০০৬ সালে সেই সংসার ভেঙে যায় মুনমুনের।

এর পর দেশে ফিরে এসে ফের শোবিজে নিয়মিত হওয়ার পর রোবেনকে বিয়ে করেন। এক দশকের সেই সংসারটিও এবার ভেঙে গেল।

প্রসঙ্গত, মুনমুন ১৯৯৭ সালে বিখ্যাত পরিচালক এহতেশাম পরিচালিত ‘মৌমাছি’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে প্রবেশ করেন। এর পর প্রায় ৮৫টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। সর্বশেষ ২০১৭ সালে মিজানুর রহমান মিজান পরিচালিত ‘রাগী’ চলচ্চিত্রে খলচরিত্রে অভিনয় করেন তিনি।

Bootstrap Image Preview