Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৭ বুধবার, এপ্রিল ২০২৪ | ৪ বৈশাখ ১৪৩১ | ঢাকা, ২৫ °সে

থার্টিফার্স্ট নাইটে মদ খেয়ে রাস্তাঘাটে মাতলামি করলে কঠোর ব্যবস্থা

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩০ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫১ PM
আপডেট: ৩০ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫১ PM

bdmorning Image Preview


মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও উচ্ছৃঙ্খলতা রোধে থার্টিফার্স্ট নাইটে রাজধানীর সব বার বন্ধ থাকবে। এ ছাড়া বিশেষ অভিযান চালাবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর (ডিএনসি)।

থার্টিফার্স্ট নাইট কেন্দ্র করে অবৈধ ও বিষাক্ত মদ পান করে কোনো প্রাণহানি বা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি না ঘটে সে বিষয়ে পূর্বসতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এজন্য গঠন করা হয়েছে একাধিক বিশেষ টিম। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে এ বিষয়ে এরই মধ্যে কার্যকর ব্যবস্থা নিয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থাটি।

ডিএনসিসূত্রে জানা গেছে, আগামীকাল থার্টিফার্স্ট নাইট উদযাপন উপলক্ষে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধে ঢাকা মহানগরীর সব বার বন্ধ এবং মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত আইনশৃঙ্খলাসংক্রান্ত এক সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরদিন (১ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টা নগরীর সব বার বন্ধ থাকবে। বিষয়টি এরই মধ্যে বারসংশ্লিষ্টদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া থার্টিফার্স্ট নাইটে মাদক সেবন করে রাস্তাঘাটে যাতে কেউ মাতলামি বা উচ্ছৃঙ্খলতা না করে সেজন্য ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ইংরেজি নববর্ষ উদ্যাপনকালে দেশের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অবৈধভাবে মাদকদ্রব্য বি­ি চোরাচালানসহ মাদক বিক্রির চিহ্নিত স্থান এবং হোটেল, রেস্তোরাঁয় অবৈধভাবে মাদক বিক্রি ও ব্যবহার রোধে মাদকবিরোধী অভিযান জোরদারে একাধিক টিম গঠন করা হয়েছে।

ডিএনসির উপপরিচালক (ঢাকা মেট্রো-উত্তর) মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামানের নেতৃত্বাধীন টিম গুলশান, রমনা, তেজগাঁও, ধানমন্ডি, উত্তরা, মিরপুর ও মোহাম্মদপুর; উপপরিচালক (ঢাকা মেট্রো-দক্ষিণ) মো. মাসুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন টিম সূত্রাপুর, কোতোয়ালি, মতিঝিল, সবুজবাগ, ডেমরা, লালবাগ ও খিলগাঁও এবং উপপরিচালক (ঢাকা জেলা) মো. বাহাউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন টিম কেরানীগঞ্জ, সাভার, ধামরাই, দোহার ও নবাবগঞ্জে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করবে। সার্বিক কার্যক্রম সমন্বয় করবেন ডিএনসির অতিরিক্ত পরিচালক (ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়) মো. জাফরুল্ল্যাহ কাজল। থাকবে স্পেশাল মনিটরিংয়ের ব্যবস্থাও। থার্টিফার্স্ট নাইট উপলক্ষে এ অভিযান চালানো হবে।

জানা গেছে, থার্টিফার্স্ট নাইট ঘিরে রাজধানীতে হোটেল, রেস্তোরাঁ, রেস্ট হাউস, গেস্টহাউসসহ আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবনে নানা অনুষ্ঠানের পাশাপাশি ডিজে পার্টির আয়োজন করা হয়। এসব অনুষ্ঠানে চলে তরুণ-তরুণীদের শরীরী উন্মাতাল উন্মাদনা। নাচের নামে অশালীন অঙ্গভঙ্গির মধ্যে চলে ইয়াবা, আইস, সিসা, বিয়ারসহ অবাধ মাদক সেবন। নেশায় বুঁদ হয়ে যায় তরুণ-তরুণী। এমনকি অসামাজিক কাজেও লিপ্ত হয় তারা। আবার এসব স্থানে দেহব্যবসার সঙ্গে অবৈধ মাদকের ব্যবসা চলে। এসব অবৈধ মাদকের বিরুদ্ধে রাজধানীতে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে ডিএনসি। এ পর্যন্ত একাধিক অভিযান পরিচালনা করে মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও এর সঙ্গে জড়িতদের গ্র্রেফতার করে আইনের আওতায় এনেছে সংস্থাটি।

ডিএনসির অতিরিক্ত পরিচালক (ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়) মো. জাফরুল্ল্যাহ কাজল বলেন, ‘থার্টিফার্স্ট নাইটে কোনো হোটেল, রেস্তোরাঁ, আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবনে আয়োজিত ডিজে পার্টি বা অনুষ্ঠান আমরা অনুমোদন দিইনি। কেউ এসব অনুষ্ঠান করলে বা অনুষ্ঠানে বিয়ার, ইয়াবাসহ যে-কোনো মাদকদ্রব্য গ্রহণ করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাশাপাশি মদ খেয়ে কেউ রাস্তাঘাটে মাতলামি/উচ্ছৃঙ্খলতা করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এসব কর্মকান্ড থেকে তিনি সবাইকে বিরত থাকতে অনুরোধ করেন।তিনি বলেন, ‘যেহেতু বার বন্ধ থাকবে তাই থার্টিফার্স্ট নাইটে ও পরদিন মদ খাওয়ার জন্য যাদের অনুমতি (পারমিট) আছে তারা আগে থেকে মদ সংগ্রহ করে বাসায় খেতে পারবেন। তবে এর ব্যত্যয় ঘটলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে। মাদকের বিরুদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্স।’ মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানের অংশ হিসেবে উপপরিচালক, সহকারী পরিচালক ও পরিদর্শকের সমন্বয়ে ১০টি স্পেশাল টিম গঠন করা হয়েছে।

ডিএনসির পরিচালক (অপারেশনস ও গোয়েন্দা) তানভীর মমতাজ জানান, থার্টিফার্স্ট নাইট উপলক্ষে মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান জোরদার করা হয়েছে। এরই মধ্যে বিভাগীয় কার্যালয়, গোয়েন্দা শাখা, মেট্রো উপ-অঞ্চল, জেলা কার্যালয়ে মাদকবিরোধী একাধিক টিম গঠন করা হয়েছে। ২৫ ডিসেম্বর বড়দিনে মাদকবিরোধী অভিযান শুরু হয়েছে। থার্টিফার্স্ট নাইটে সারা দেশের সব বার বন্ধ থাকবে। রাজধানী ঢাকার অলিগলিতে অভিযান চালানো হবে। থার্টিফার্স্ট নাইটে দেশি-বিদেশি মদ বহনসহ লাইসেন্সকৃত সব রেস্তোরাঁ, হোটেল, ক্লাব বা বার খোলা থাকলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Bootstrap Image Preview