Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৮ মঙ্গলবার, জুন ২০২৪ | ৪ আষাঢ় ১৪৩১ | ঢাকা, ২৫ °সে

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৮ ডিগ্রি

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:২৫ PM
আপডেট: ১৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:২৫ PM

bdmorning Image Preview


প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে পঞ্চগড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ থেকে ১২ ডিগ্রির মধ্যে উঠানামা করছে। আর দিনের (সর্বোচ্চ) তাপমাত্রাও কমে ২৭ থেকে ২৯ডিগ্রি সেলসিয়াস এর মধ্যেই রয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় সর্বনিম্ন ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। সোমবারও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সাতদিন আগেও গত মঙ্গলবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই তাপমাত্রা দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন।

প্রায় দুই সপ্তাহ থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে পরদিন ভোর পর্যন্ত কনকনে শীত অনুভূত হচ্ছে জেলায়। তবে ঘন কুয়াশা নেই । সকাল ৭ টার মধ্যেই সূর্যের আলো ছড়িয়ে পরছে চারদিন। দিনে গরমের কারণে শীত নিয়ে এখনও তেমন দূর্ভোগ দেখা যায়নি। সোমবার দিনে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৭ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অফিস ও স্থানীয় সূত্র জানায়, প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকলেও ডিম্বেরের মাঝামাঝি থেকে বাড়তে পারে শীতের তীব্রতা। বেশ কয়েক দিন ধরে ঘন কুয়াশাও নেই। রাতের তাপমাত্রা কমলেও বর্তমানে জেলার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৭ থেকে ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে উঠানামা করছে। শীতের মৌসুমজুড়ে প্রায় প্রতিদিন পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হচ্ছে। তবে সকাল ৭ টার মধ্যেই ঝলমলে রোদ ছড়িয়ে পরে চারদিকে। দিনে গরম আর রাতে কনকনে শীতের কারণে বাড়ছে শীতজনিত রোগ বালাই। বিশেষ করে বয়স্ক ও শিশুরা সর্দি, জ্বর, কাশি, নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ৩৫/৪০ শিশু শীতজনিত রোগ নিয়ে ভর্তি হচ্ছে। একই অবস্থা জেলার বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ সরকারি -বেসরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে।

জেলা শহরের পূর্ব জালাসী পাড়ার অটো ভ্যান চালক কাইমুল ইসলাম (৪৮) বলেন, কয়েক দিন ধরে সন্ধ্যার পর থেকে খুব ঠান্ডা লাগছে। বেশি রাত করে বাইরে থাকা যায় না। তবে রোদের কারণে দিনে অনেক গরম থাকে। কয়েক দিন ধরে বাড়ির সবাই সর্দি ও জ্বরে ভূগছি। হাসপাতাল থেকে ওষুধ খেয়ে জ্বর ছেড়েছে। এখনো সর্দি লেগে আছে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ বলেন, মঙ্গলবার সকাল ৮ টায় সর্বনিম্ন ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। সোমবারও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তাপমাত্রা ছিল ১২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চলতি সপ্তাহের মধ্যেই শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, রাতের শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পেলেও বেশ কিছুদিন ধরে দিনে গরম আবহাওয়া থাকছে। ঋতু পরিবর্তনের এই সময়ে প্রতি বছরের মত এবারও শিশু ও বয়স্করা শীতজনিত নানা রোগ আক্রান্ত হচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন, এই সময়ে শিশুদের ধুলাবালি এড়িয়ে চলা দরকার। এছাড়া সন্ধ্যার পর কারণ ছাড়া বাইরে না থাকা এবং বাসি ও ঠান্ডা খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দেন এই চিকিৎসক।।

Bootstrap Image Preview