Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৯ বুধবার, জুন ২০২৪ | ৪ আষাঢ় ১৪৩১ | ঢাকা, ২৫ °সে

কুষ্টিয়ায় ৭০ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৭:০৯ PM
আপডেট: ২৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৭:০৯ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সেচখাল দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়েছে। এসময় জিকে সেচ প্রকল্পে ৭০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় ভেড়ামারা সেচ পাম্প হাউজ সংলগ্ন এলাকায় শুরু হওয়া দিনব্যাপী এই উচ্ছেদ অভিযান চালান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফুন নাহার।

এসময় ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সহকারী কমিশনার (ভূমি), বাপাউবো’র নির্বাহী প্রকৌশলী ও উর্দ্ধতন প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ র‍্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পানি উন্নয়ন বোর্ড কুষ্টিয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী পিযুষ কৃষ্ণ কুন্ডু জানান, দীর্ঘদিন ধরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের গুরুত্বপূর্ণ সেচ প্রকল্প গঙ্গা-কপোতাক্ষ’র (জিকে) প্রধান সেচ খালসহ শাখা খালগুলোর ওপর অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করায় সেচ সরবরাহে সমস্যা হচ্ছিল। পানি উন্নয়ন বোর্ড ও পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনার বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসনসহ সমন্বিত উদ্যোগে এই উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়েছে। যদিও এই অভিযান শুরু করতে নানা মহল থেকেই প্রতিবন্ধকতা দেখা দিচ্ছিল। তবে সবার সাথে কথা বলেই এই উচ্ছেদ বাস্তবায়ন শুরু হল।

তিনি আরো জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে দীর্ঘ ৩৫ কিলোমিটার মেইন খালের ওপর প্রায় ১৬শ’ অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করে ৩ মাস পূর্ব থেকে একাধিকবার উচ্ছেদ নোটিশ দেয়া হয়েছে।

ভেড়ামারা পাম্প হাউজ সংলগ্ন ১নং ব্রিজের পাশ থেকে উচ্ছেদ হওয়া ভূমিহীন একটি পরিবারের অভিযোগ, আমরাতো নোটিশ পাওয়ার পরই বাড়ি ভেঙে নিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু মেম্বর চেয়ারম্যানরা বলেছিলো, বসে আছো থাকো, দেখা যাক কি করা যায়। এসব অবৈধ দখল ও স্থাপনার সাথে স্থানীয় প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধিদের প্রশ্রয়েই সবাই ঘর তুলে আছে।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফুন নাহার জানান, চলমান এই অভিযানের প্রথম দিনে জিকে মেইন খালের ওপরের ৭০টি স্থাপনা উচ্ছেদের মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া এ অভিযান চলমান থাকবে। নোটিশ পাওয়া সব অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হবে।

 

Bootstrap Image Preview