Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৫ মঙ্গলবার, জুন ২০২৪ | ১১ আষাঢ় ১৪৩১ | ঢাকা, ২৫ °সে

নিজের দেশকে বিক্রি করিনি অন্যদের মতো: কানেরিয়া

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৪০ AM
আপডেট: ৩০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৪০ AM

bdmorning Image Preview


আবারও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রতি রাগ-ক্ষোভ উগরে দিলেন দানিশ কানেরিয়া। রোববার আক্রমণের সুর আরও এক কদম বাড়িয়ে তিনি বললেন, পিসিবি এমন কিছু ক্রিকেটারকে স্বাগত জানিয়ে দলে ফিরিয়েছে, যারা দেশকে বিক্রি করে দিয়েছিল। আমি তো সেই অপরাধ করিনি। আমার ওপর নিষেধাজ্ঞা তোলার জন্য বোর্ডের অনেক কর্মকর্তার কাছে গেছি। কিন্তু কেউ কিছু করেনি।

 

ধর্মীয় কারণে পাকিস্তান জাতীয় দলে ব্রাত্য ছিলেন কানেরিয়া। গেল সপ্তাহের শুরুতে পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলে প্রথম এ বিস্ফোরক মন্তব্য করেন দেশটির সাবেক গতিতারকা শোয়েব আখতার। পরে সেই অভিযোগ সত্য বলে স্বীকার করেন খোদ কানেরিয়া। স্পট ফিক্সিংয়ের দায়ে ক্রিকেটে এখন নিষিদ্ধ তিনি। তবে শোয়েব তাকে নিয়ে মুখ খোলার পর থামতেই চাচ্ছেন না লেগস্পিনার। একের পর এক বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন।

এদিন আত্মহত্যার হুমকি দেন কানেরিয়া। তিনি বলেন, গেল ১০ বছরে আমার কোনো আয়-রোজগার নেই। টিভি চ্যানেলগুলো আমাকে ডাকা বন্ধ করে দিয়েছে। আগে টিভিতে যেসব অনুষ্ঠান করেছি, সেই বকেয়া অর্থও পাচ্ছি না। আমার সংসার রয়েছে। তাদের নিয়ে তো বাঁচতে হবে? কিন্তু আপনারা আমার হাতটাই কেটে দিয়েছেন। এখন কি চান নিজেকে চিরতরে শেষ করে দিই?

কয়েক দিন আগে সাবেক পাক অধিনায়ক জাভেদ মিয়াঁদাদ বলেন, টাকা পেলে সবকিছু বলতে পারে কানেরিয়া। পরিপ্রেক্ষিতে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে কথা বলেছেন এ ঘূর্ণি জাদুকর। তবে কারও নাম উল্লেখ করেননি তিনি। দানিশ বলেন, অনেকে বলছেন– আমার ইউটিউব চ্যানেলের প্রচারের জন্য বস্তাপচা, সস্তা পদ্ধতি বেছে নিয়েছি। তাদের মনে রাখা উচিত, আমার প্রতি বৈষম্যের বিষয়টি আমি নিজে সামনে আনিনি। শোয়েবই টিভিতে প্রথম বিষয়টি প্রকাশ্যে আনে, উত্থাপন করে।

তবু কারও নাম প্রকাশ না করে কানেরিয়া বলেন, পাকিস্তানে এ রকম অনেক ক্রিকেটার রয়েছে, যারা ম্যাচ পাতিয়েছে। অথচ তাদের সম্মান দিয়ে দলে ফেরানো হয়েছে। দেশের জন্য ১০ বছর মাঠে রক্ত ঝরিয়েছি। টেস্টে দিনে ৩০-৪০ ওভার বোলিং করে আঙুল রক্তাক্ত হয়েছে। তবু চোট-আঘাতের অজুহাত দিয়ে কোনোদিন মাঠ ছাড়িনি। স্পট ফিক্সিং করে ভুল করেছি। যারা টাকার জন্য দেশকে বিক্রি করে দিয়েছিল, তাদের জাতীয় দলে সসম্মানে ফেরানো হয়েছে। কাউকে টিভি চ্যানেলে বিশেষজ্ঞও করা হয়েছে।

তিনি বলেন, যার জন্য ফিক্সিংকাণ্ডে ফেঁসেছি, তাকে আমি চিনতামই না। ওই ব্যক্তি পাকিস্তানে আসতেন পিসিবির আমন্ত্রণে। আমাকে তার সঙ্গে আলাপ করিয়ে দেয়া হয়েছিল।

পাকিস্তানের হয়ে ৬১ টেস্টে ২৬১ উইকেট শিকার করা লেগস্পিনার বলেন, এসেক্সের হয়ে তিন ধরনের ক্রিকেট চুটিয়ে খেলেছি। অথচ আমাকে টেস্ট বোলার বানিয়ে দেয়া হলো। আপনারা আমার আত্মীয় এবং পাকিস্তানের প্রথম হিন্দু ক্রিকেটার অনিল দলপতের কথা বলছেন। তাকে জিজ্ঞেসা করুন, কেন তার ক্রিকেট জীবন দীর্ঘ হয়নি?

পাকিস্তান দলের হয়ে ৯ টেস্ট ও ১৫ ওয়ানডে খেলা অনিল ২০০২ সালে অভিযোগ করেন, বিশ্বজয়ী পাক অধিনায়ক এবং বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের জন্যই তার ক্রিকেট জীবন সংক্ষিপ্ত হয়ে গিয়েছিল।

Bootstrap Image Preview