Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ২৬ সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ | ঢাকা, ২৫ °সে

কাল থেকে শুরু হচ্ছে সমকালীন পুতুলনাট্য কর্মশালা ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭ অক্টোবর ২০১৮, ১০:০২ PM
আপডেট: ০৭ অক্টোবর ২০১৮, ১০:০২ PM

bdmorning Image Preview
ফাইল ছবি


কাল থেকে শুরু হচ্ছে ‘সমকালীন পুতুলনাট্য কর্মশালা ২০১৮’। ৫ দিনব্যাপী এই কর্মশালা চলবে ১২ তারিখ পর্যন্ত। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬.৩০ টায় ভারতের ক্যালকাটা পাপেটের প্রযোজনা ‘আলাদীন’ পাপেট থিয়েটার প্রদর্শনী আয়োজন করা হবে জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে।

আগামীকাল ৮ অক্টোবর ২০১৮ সকাল ১০টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার কক্ষে উদ্বোধন করা হবে ‘সমকালীন পুতুলনাট্য কর্মশালা ২০১৮’।

৫ দিনব্যাপী এই কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক জনাব লিয়াকত আলী লাকী, ভারতের প্রখ্যাত পাপেট থিয়েটার নির্দেশক পদ্মশ্রী সুরেশ দত্ত এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সচিব জনাব মোঃ বদরুল আনম ভূঁইয়া।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে নাট্যকলা ও চলচ্চিত্র বিভাগের ব্যবস্থাপনায় ভারতের প্রখ্যাত পাপেট থিয়েটার নির্দেশক পদ্মশ্রী সুরেশ দত্তের তত্ত্বাবধায়নে ও নির্দেশনায় আয়োজিত এই কর্মশালার পাশাপাশি আগামী ৮ ও ১২ অক্টোবর প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬.৩০ টায় একাডেমির জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে ‘আলাদীন’ পাপেট থিয়েটার প্রদর্শনী আয়োজন করা হবে।

প্রখ্যাত পাপেট থিয়েটার নির্দেশক পদ্মশ্রী সুরেশ দত্ত এর নির্দেশনায় সর্বভারতের আলোড়ন সৃষ্টিকারী ক্যালকাটা পাপেটের প্রযোজনায় প্রদর্শনীটি চলবে।

এর আগে ১১ জুলাই বাংলাদেশে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে পুতুলনাট্য ও এই শিল্পের শিল্পীদের মূল্যায়নে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী তার নিজ কার্যালয়ে চারজন পুতুলনাট্য শিল্পীকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান দিয়েছেন। তার পরিকল্পনায় ইতোমধ্যে পুতুলনাট্যের চারটি প্রযোজনা নির্মিত হয়েছে যা দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। অনুদানের অর্থ দিয়ে নতুন প্রদর্শনীর ব্যবস্থা ও পুতুলনাট্যের মান উন্নয়নে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন শিল্পীরা। এসময় নাট্যকলা ও চলচ্চিত্র বিভাগের পরিচালক বদরুল আনাম ভূঁইয়াসহ একাডেমির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

লিয়াকত আলী লাকী জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী ও মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযদ্ধের উপর আরো চারটি নতুন প্রযোজনা নির্মাণের জন্য জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক আল জাবীর, সহকারী অধ্যাপক তোকদার বাঁধন, নাট্যকার তানভীর আহমেদ সিডনী, পুতুলনাট্য শিল্পী ও উপস্থাপক তামান্না তিথি, এই চারজন লেখক স্ক্রিপ্ট তৈরীর কাজ করছেন বলে জানিয়েছেন। এছাড়াও তিনি বলেন, প্রতি বছর নিয়মিতভাবে বিশ্বপুতুলনাট্য দিবস উদযাপন করে আসছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি।

লোকশিল্পের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসেবে বর্তমানে আধুনিক শিল্পচর্চা ও গবেষণার ক্ষেত্রে পুতুলনাট্য একটি বিরাট অংশ জুড়ে রয়েছে। উন্নত বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও বিগত কয়েক দশক ধরে শিক্ষা, স্বাস্থ ও জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য সংস্কৃতির এ মাধ্যমটি বিশেষ ভূমিকা পালন করছে। সেই জন্যেই বাংলার ঐতিহ্যবাহী পুতুলনাট্যকে সংস্কৃতির মূল ধারায় আবার ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি।

Bootstrap Image Preview