Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ১৫ শনিবার, জুন ২০২৪ | ১ আষাঢ় ১৪৩১ | ঢাকা, ২৫ °সে

H2O'র দেখা পেল সেই সুন্দরী!

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২ অক্টোবর ২০১৮, ০৮:১৯ PM
আপডেট: ০২ অক্টোবর ২০১৮, ০৮:১৯ PM

bdmorning Image Preview
সংগৃহীত


‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮’ সুন্দরী খোঁজার এই প্রতিযোগিতা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভেসে বেড়াচ্ছে আলোচনা-সমালোচনা। সেখানে বিচারক আর প্রতিযোগীসহ নাম আসছে আয়োজক প্রতিষ্ঠানেরও। তবে এবারের প্রতিযোগীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সমালোচিত হন সুমনা নাথ অনন্যা। বিচারকের একটি সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতে না পারাতে তাঁকে নিয়ে ফেসবুকে ট্রলের বন্যা বইয়ে দিচ্ছেন নেটিজেনরা।

রবিবার ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় অনুষ্ঠানে বিচারক খালেদ হোসেন সুজন অনন্যাকে প্রশ্ন করেছিলেন, 'H2O কী'! পানির রাসায়নিক সংকেতের বদলে অনন্যা জানিয়েছিলেন, ‘এইচটুও নামে একটি রেস্টুরেন্ট আছে ধানমন্ডিতে’।

কিন্তু এই একটি মাত্র ভুলেই জন্ম দিচ্ছে নানা প্রশ্নের। অনেকে বলছেন, ওটা ভুল নয়। কিছু মানুষ প্রশ্ন তুলছেন বিষয়টি কি সাজানো? অনন্যা কি উত্তরটি জানতেন না, নাকি ইচ্ছে করেই এমন উত্তর দিয়েছেন। অথবা বিচারকই বা কেন এমন প্রশ্ন করবেন।

তবে যাই হোক একটি ভুল উত্তরে অনন্যা সমালোচিত হলেও আলোচিত হয়ে গেছে ধানমণ্ডির H2O নামের রেস্তোরাঁটি। বেশ ভালো প্রচারণা পেয়েছে এ রেস্তোরাঁটি। কারণ অনুষ্ঠানটির ঐ অংশের ভিডিওটি ভাইরাল হলে দর্শকদের মনে কৌতূহল সৃষ্টি হয়। এটা আসলে কেমন রেস্টুরেন্ট, এখানে কী পাওয়া যায়? আদৌ কি তার অস্তিত্ব আছে?

তবে এর জন্য অনন্যার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে ‘H2O’ নামের রেস্তোরাঁটি। আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন এই অনন্যাকে। এরপর গতকাল সোমবার (১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ‘H2O’র ধানমন্ডি শাখাতে গিয়েছিলেন এই সুন্দরী। সেখানে তাকে আপ্যায়নের কোনও কমতি করেনি রেস্তোরাঁটি।

এ ব্যাপারে আবেগে আপ্লুত অনন্যা এ প্রতিবেদককে জানান, H2O রেস্তোরাঁর আমন্ত্রণ ও তাদের সম্ভাষণে আমি বেশ মুগ্ধ। শুধু ধানমণ্ডি শাখাই নয় H2O রেস্তোরাঁর বনানী শাখাও আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। বনানী শাখাতেও আমার যাওয়ার ইচ্ছা আছে।

ওই রেস্তোরাঁয় গিয়ে বেশকিছু ছবি তোলেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশে’ সেরা দশে থাকা এই সুন্দরী। শুধু তা-ই নয়, রেস্তোরাঁর কর্মীরা সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে তাঁর সঙ্গে ছবিও তোলেন। সেসব ছবি তিনি তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেন। আর সঙ্গে সঙ্গে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে যায়। শুরু হয় নতুন গুঞ্জন।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ সেপ্টেম্বর রবিবার বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটির রাজদর্শন হলে অনুষ্ঠিত হয় জমকালো গ্র্যান্ড ফিনালে। সেখানে নিয়মিত বিচারকদের পাশাপাশি বিশেষ বিচারক হিসেবে যোগ দেন মাইলস ব্যান্ডের শাফিন আহমেদ, হামিন আহমেদ এবং নৃত্যশিল্পী আনিসুল ইসলাম হিরু।

ফাইনাল পর্বে বিচারকদের উদ্ভট প্রশ্ন আর প্রতিযোগীদের এলোমেলো উত্তর, পুরো আয়োজনটাকেই যেন মাটি করে দিয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমত সমালোচনার ঝড় বইছে এই অনুষ্ঠান নিয়ে। বিতর্কের জন্য তো আর আয়োজন থেমে যাবে না। যথারীতি ঘোষণা হলো ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮’র বিজয়ীর নাম। তিনি জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। পিরোজপুরের এই তরুণীকে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য বিচারকরা যোগ্যতর মনে করেছেন। তাই তার মাথায় উঠেছে বিজয়ীর মুকুট।

আগামী ৮ ডিসেম্বর থেকে চীনের সানিয়ায় অনুষ্ঠিত হবে ‘মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৮’র মূল পর্ব। সেখানে বিভিন্ন দেশের সেরা সুন্দরীদের সঙ্গে বিশ্বের সেরা সুন্দরীর খেতাব পেতে লড়বেন বাংলাদেশের এই সেরা সুন্দরী।

Bootstrap Image Preview