Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৫ রবিবার, ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ২৩ মাঘ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

‘বয়ফ্রেন্ড’ জোগাড় করে দিতে চাওয়া সেই দম্পতি গ্রেপ্তার

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১৩ AM
আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:২৪ AM

bdmorning Image Preview


‘মিসেস এশিয়া বাংলাদেশ ২০২২’ বিজয়ী খাদিজা আক্তার রাহার মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন প্রতিযোগিতাটির আয়োজক প্রতিষ্ঠান অপূর্ব ডটকমের মালিক অপূর্ব আবদুল লতিফ ও তার স্ত্রী আফসানা হেলালি ওরফে জোনাকি।  

বুধবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করে গুলশান থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে তোলা হয়। এ সময় পাঁচ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ।

আদালত রিমান্ড নামঞ্জুর করে অপূর্ব আবদুল লতিফ ও তার স্ত্রী আফসানা হেলালি ওরফে জোনাকিকে কারাগারে পাঠান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক ফাইজুল হক। তিনি বলেন, অপূর্ব ডটকমের মালিক অপূর্ব আবদুল লতিফ ও তার স্ত্রী আফসানা হেলালি ওরফে জোনাকি রাহার কাছ থেকে টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। যে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে সেটার অনুমোদনের কোনো কাগজপত্রও দেখাতে পারেননি তারা। এখনো তদন্ত চলছে।

এর আগে বুধবার গুলশান থানায় অপূর্ব ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে ৪০৬, ৪২০ ও ৫০৬ ধারায় মামলা করেন রাহা। পরে পুলিশ তদন্তে নামলে বিষয়টির সত্যতা পায় এবং তাদেরকে গ্রেপ্তার করে।

মামলায় রাহা উল্লেখ করেন, থাইল্যান্ডে ‘মিসেস এশিয়া ইন্টারন্যাশনাল-২০২২’ প্রতিযোগিতায় পাঠানোর প্রতিশ্রুতিতে তার কাছ থেকে ছয় লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে আয়োজক প্রতিষ্ঠান। পুরোটাই ফাঁকি জেনে তিনি টাকা চাইলে নানাভাবে হুমকি দেওয়া হয়। গত ২০ নভেম্বর বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে থাইল্যান্ডে যাওয়ার কথা ছিল রাহার।

রাহা বলেন, ‘পুলিশ ন্যায়বিচারের স্বার্থে আমার টাকাটা উদ্ধার করার জন্য সহযোগিতা করবে। ’

থাইল্যান্ডে ‘মিসেস এশিয়া’র মূল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাওয়া যাবে―এমন আশ্বাস দিয়ে ৮ নভেম্বর ছয় লাখ টাকা নিয়েছেন অপূর্ব আবদুল লতিফ। রাহার অভিযোগ, ছয় লাখ টাকা নেওয়ার পর গত ২০ নভেম্বর থাইল্যান্ডে নির্ধারিত আয়োজনে অংশ নিতে রাহাকে আবারও ১৪ লাখ টাকা দিতে বলেন আয়োজক অপূর্ব।

রাহা বলেন, ‘নানাভাবেই আমাকে হয়রানি করা হচ্ছে। এসব নিয়ে কথা বলছি বলে আমার নামে সাইবার অ্যাক্টে মামলা করা হবে―শুনছি এসব। ’

তিনি বলেন, ‘আমাকে যদি হয়রানি করা হয় তাহলে কোনো নারীই মুখ খুলবে না। আমি উইনার হওয়ার পর যখন ১৪ লাখ টাকা দিতে পারিনি, তখন উনারা বলেছেন আমাকে বয়ফ্রেন্ড ম্যানেজ করে দেবেন। যেভাবেই হোক তারা আমার মাধ্যমে ১৪ লাখ টাকা জোগাড় করে তারপর আমাকে বিদেশ নিয়ে যাবেন। ’

Bootstrap Image Preview