Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৮ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বার ২০২২ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

ক্লান্তিতে এলিয়ে পড়লেন বর; পরম যত্নে খাইয়ে দিলেন নববধূ! (ভিডিও )

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:২৯ PM
আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:২৯ PM

bdmorning Image Preview
ছবি সংগৃহীত


কথায় আছে না, ভারতীয় বিয়ের নির্যাসটাই আলাদা! আসলে ভারতের মতো দেশে বিয়ের আচারের ক্ষেত্রেও নানা বৈচিত্র্যের দেখা মেলে। রঙবেরঙের ব্রাইডাল আউটফিট, ভারী গয়না, পারফেক্ট মেক-আপ এবং সেই সঙ্গে নানা ধরনের হাজারো নিয়ম- এই সবই ভারতীয় বিবাহের অঙ্গ। দেশের বিভিন্ন প্রদেশে নিয়ম আলাদা হলেও কিন্তু কিছু কিছু বিষয় এক রকমই। যেমন- হইচই কিংবা আতিথেয়তার বিষয়টা। আসলে বাড়িতে বিয়ের সানাই বাজলেই মেতে ওঠে গোটা পরিবার। বিয়ের কয়েক দিন আগেই থেকেই শুরু হয়ে যায় হই-চই, নিয়ম-রীতি পালন। ফলে বিয়ে মিটতে-না মিটতেই ক্লান্ত হয়ে পড়ে খোদ বর-কনে, এমনকী গোটা পরিবারও। আসলে নিয়মের ঘনঘটা, সাজগোজ, ছবি তোলা, অতিথি আপ্যায়ণের জেরে প্রচুর ধকল যায় নবদম্পতির উপর দিয়ে। ঘরে ঘরেই এমন ছবির দেখা মেলে।

এই ধরনের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ইনস্টাগ্রামে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে এক সদ্য বিবাহিত দম্পতিকে। অনায়াসে বোঝা যায় যে, সদ্যই শেষ হয়েছে বিয়ে। এমনকী খোলা হয়নি বিয়ের সাজও। সোফায় বসে ঘুমে ঢুলে পড়েছেন সাদা কুর্তা-পাজামা পরিহিত বরবেশী যুবক! আর তাঁর পাশেই বসে রয়েছেন আভরণভূষিতা নববধূ! লাল-সোনালি বিয়ের সাজেই তিনি ঘুমে ঢলা পড়া স্বামীকে পরম যত্নে খাইয়ে দিচ্ছেন ফলের রস এবং কিছু ড্রাই ফ্রুটস। এর পর মিষ্টি হাসিতে যেন ফেটে পড়লেন সদ্যবিবাহিতা যুবতী! ভিডিও-য় দেখা যাচ্ছে, সেখানে লেখা, ‘ইয়ে হোতা হ্যায় শাদি কে বাদ’ (এটাই হয় বিয়ের পরে)। সেই লাইনের পাশেই দেওয়া হয়েছে মজার ইমোজিও। ইনস্টাগ্রামে ওই ভিডিও পোস্ট করে ক্যাপশন দিয়েছেন ‘লেজি ল্যাড গ্রুম’ (অলস বর)। আবার ভিডিওটির সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে ‘ঘনচক্কর’ ছবির ‘লেজি ল্যাড’ গানটাও।

যদিও ভিডিওটি বেশ পুরনোই! কারণ তা শেয়ার করা হয়েছে চলতি বছরের ১৬ মে। ইতিমধ্যেই প্রচুর মানুষের ভালোবাসা পেয়েছে ভিডিওটি। রয়েছে প্রায় ৩৫ লক্ষ ভিউ। ১ লক্ষ ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষ পছন্দ করেছেন ভিডিওটিকে। আর কমেন্ট বাক্সেও উপচে পড়ছে। আসলে মিষ্টি-মজার এই ভিডিওটির সঙ্গে নিজেদেরও মিল খুঁজে পাচ্ছেন অনেকেই! এক জন নেটাগরিক তো লিখেই দিয়েছেন যে, “একদম এটাই আমার সঙ্গেও ঘটেছে।” আবার ঘুমন্ত বরকে দেখে অনেকের মনে সহানুভূতিও জেগেছে। তাই এক নেটাগরিক লিখেছেন, “আরে ভাই, ওকে একটু ঘুমোতে দিন!” আবার অন্য এক নেটাগরিক নববধূর উদ্দেশে লিখেছেন যে, “কী কেয়ারিং!” সঙ্গে কিছু লাভ ইমোজিও জুড়ে দিয়েছেন তিনি!

Bootstrap Image Preview