Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ৩০ শুক্রবার, সেপ্টেম্বার ২০২২ | ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

সেই মোনাজাত নিয়ে যা বললেন চট্টগ্রামের ডিসি

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫৯ PM
আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫৯ PM

bdmorning Image Preview


চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর সঙ্গে জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমানও মোনাজাত ধরেছেন, এমন একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

সেই ভিডিওতে জেলা প্রশাসককে আওয়ামী লীগের গুণকীর্তন করতেও শোনা যায়। এই মোনাজাত ও বক্তব্যের মাধ্যমে জেলা প্রশাসক সরকারি চাকরিবিধি লঙ্ঘন করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ইতিমধ্যে এই ঘটনার জেরে মমিনুর রহমানকে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে এই ঘটনাকে পরিকল্পিত ষড়যন্ত্রের অংশ বলে দাবি করেছেন জেলা প্রশাসক। বিভিন্ন দুর্নীতি ও ভূমি দস্যুতার বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসনের চলমান কর্মকাণ্ডে ক্ষুব্ধ হয়ে একটা স্বার্থান্বেষী মহল এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে দাবি করেছেন তিনি।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান বলেন, আমার নানামুখী উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল দীর্ঘদিন ধরে ষড়যন্ত্র করছে। সেই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে আমাকে ইচ্ছাকৃতভাবে বিব্রত করার উদ্দেশ্যে জেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলকালীন খণ্ডিত, বিকৃত এবং অসত্য তথ্য সংবলিত সংবাদ কিছু মিডিয়ায় প্রকাশ করা হচ্ছে। এ সংক্রান্ত একটি লিগ্যাল নোটিশ ইস্যু হওয়ার আগেই বা নোটিশ গ্রহীতারা নোটিশ পাবার আগেই কিছু মিডিয়ায় লিগ্যাল নোটিশ প্রদানের বিষয়টি ফলাও করে প্রচার করা হয়েছে। এতেই প্রমাণিত হয় যে, বিষয়টি সম্পূর্ণ পূর্বপরিকল্পিত একটি অপপ্রচার।

তিনি বলেন, সেদিন (১৫ই সেপ্টেম্বর) আগে থেকেই জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সম্প্রীতি সমাবেশ, আসন্ন দুর্গাপূজার প্রস্তুতিমূলক বিশেষ সভা, বিভিন্ন দুর্ঘটনায় নিহত ও আহতদের চেক বিতরণের কর্মসূচি ছিল। সেখানে সম্প্রতি বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড, মিরসরাই রেলক্রসিং দুর্ঘটনা ও ঠিক আগের দিন ১৪ই সেপ্টেম্বর জোরারগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪ জনের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিলের কর্মসূচিও ছিল।

সেই সম্প্রীতি সমাবেশের প্রস্তুতিমূলক সভা চলাকালীন জেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারীরা একযোগে সম্মেলন কক্ষে ঢোকেন এবং হুড়োহুড়ি করে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে থাকেন।
মমিনুর রহমান বলেন, মনোনয়নপত্র দাখিলকালীন একপর্যায়ে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এটিএম পেয়ারুল ইসলামের সঙ্গে থাকা শ্রমিক লীগ নেতা সফর আলী আকস্মিকভাবে মোনাজাত ধরেন। বিক্ষিপ্তভাবে সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত অনেকেই মোনাজাতে অংশ নেন। অনেকটা ভদ্রতার খাতিরে সেই মোনাজাতে অংশগ্রহণ করি। সেই মোনাজাতে দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা এবং দুর্ঘটনায় নিহত ও আহত ব্যক্তিদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। সেখানে জেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে কোনো কিছু বলা হয়নি। 

তিনি বলেন, দুর্নীতি বিরোধী অভিযান থেকে শুরু করে সম্প্রতি জঙ্গল সলিমপুরের সরকারি জায়গা উদ্ধারে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসনের কঠোর ভূমিকার কারণে একটি অসাধু মহল আমার উপর ক্ষুব্ধ। মূলত: তারাই এই বিষয়কে বিকৃতভাবে উপস্থাপন করে অপপ্রচার চালাচ্ছে। 

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ৩রা জানুয়ারি থেকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব নেন মোহাম্মদ মমিনুর রহমান। এ পর্যন্ত তার প্রশাসন ১৩৬টি দুর্নীতি বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ৩৯ জনকে কারাদণ্ড, ৯৬ জনকে অর্থদণ্ড, ৭ জনকে চাকরিচ্যুত করেছে। জেলার ভূমি অফিস, তহসিল অফিস ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে অত্যাধুনিক ৭১৮টি সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করে সরাসরি ডিসি অফিস থেকে মনিটরিংয়ে তার উদ্যোগ প্রশংসা কুড়িয়েছে সাধারণ মানুষের। সর্বশেষ সীতাকুণ্ড উপজেলার জঙ্গল সলিমপুরের প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকার ৩ হাজার ১০০ একর সরকারি খাস জমি উদ্ধারের কার্যক্রম চালাচ্ছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন।

Bootstrap Image Preview