Bootstrap Image Preview
ঢাকা, ০৮ সোমবার, আগষ্ট ২০২২ | ২৩ শ্রাবণ ১৪২৯ | ঢাকা, ২৫ °সে

‘ঢাকার চারপাশের ব্রিজ ভেঙে নৌ চলাচলের উপযোগী করা হবে’

বিডিমর্নিং ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০২২, ০৯:১৭ PM
আপডেট: ২৬ জুন ২০২২, ০৯:১৭ PM

bdmorning Image Preview
ছবি সংগৃহীত


 ঢাকার চারপাশে নদ-নদীর ওপর নির্মিত ব্রিজ ভেঙে নৌযান চলাচলের উপযোগী করে নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

রোববার (২৬ জুন) দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে ‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওতাভুক্ত এলাকায় অবস্থিত বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়ন্ত্রণাধীন রেগুলেটর/আউটলেট স্ট্রাকচারসমূহ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নিকট হস্তান্তর’ উপলক্ষে আয়োজিত সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তাজুল ইসলাম বলেন, ঢাকার চারপাশে নদ-নদীর ওপর যে সেতুগুলো রয়েছে সেগুলো নৌ-যান চলাচলের উপযোগী নয়। ইতোমধ্যে সেসব সেতু চিহ্নিত করা হয়েছে এবং সেগুলো ভেঙে নৌ-যান চলাচল উপযোগী করে নির্মাণের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নৌ-রুট চালু করতে পারলে ঢাকার রাস্তায় ট্রাফিক অনেকটাই কমে আসবে।

অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর জলাবদ্ধতা অনেক কম হয়েছে উল্লেখ করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ঢাকা ওয়াসার কাছ থেকে দুই সিটি করপোরেশনের কাছে খাল হস্তান্তরের পর সেগুলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, খনন-পুনঃখনন ও সংস্কার করা হচ্ছে। অবৈধভাবে দখল হয়ে যাওয়া অনেক জায়গা ও খাল উদ্ধার করা হয়েছে। ফলে অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর জলাবদ্ধতা অনেক কম হয়েছে। আমরা দেখেছি ঢাকা শহরের রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে যেতো। আজ কিন্তু সেই পরিস্থিতি নেই।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, ঢাকায় বৃষ্টির পানি সরে যাওয়ার প্রাকৃতিক ব্যবস্থা নষ্ট হয়ে গেছে। আগে বৃষ্টির পানি খাল দিয়ে নদীতে চলে যেত। কিন্তু এখন এসব খাল ও নদী প্রায় ভরাট হয়ে গেছে। এ অবস্থায় সিটি করপোরেশন রাজধানীর খালগুলো সংস্কার ও সৌন্দর্যবধর্নে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছে, তা সত্যিই আশাব্যঞ্জক। সিটি কপোরেশনের কার্যকলাপ আমাদের আলো দেখাচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ‍্য নেতৃত্বে বর্তমানে দেশে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা চলছে। ঢাকা সিটির দুই মেয়র সমন্বয়ের মাধ‍্যমে ঢাকা শহরে জলাবদ্ধতা নিরসনসহ অনেক ক্ষেত্রেই সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন। আমি আশাবাদী যে, খুব শিগগিরই ঢাকা একটি বাসযোগ‍্য ও আধুনিক শহরে রূপান্তরিত হবে।

অনুষ্ঠানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের মাধ্যমে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়ন্ত্রণাধীন ঢাকা সমন্বিত বন্যা প্রতিরোধ প্রকল্পের আওতায় নির্মিত ৩৭টি রেগুলেটর/ড্রেনেজ আউটলেট স্ট্রাকচার এবং বুড়িগঙ্গা নদীর ডান তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় পানি নিষ্কাশনের জন্য নির্মিত ১৮টি ড্রেনেজ আউটলেট ট্রাকচার অর্থাৎ সর্বমোট ৫৫টি রেগুলেটর/ড্রেনেজ আউটলেট স্ট্রাকচার ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন বরাবর হস্তান্তর করা হলো। এর ফলে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এসব রেগুলেটর/ড্রেনেজ আউটলেটসমূহের মেরামত, রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচালনার জন্য ক্ষমতাপ্রাপ্ত হলো।

Bootstrap Image Preview